ময়মনসিংহে বোনকে হত্যার দায়ে ভাইয়ের যাবজ্জীবন

প্রকাশ: ১৬ জুলাই ২০১৯      

ময়মনসিংহ ব্যুরো

ময়মনসিংহে সহোদর বোন হত্যার দায়ে ভাইকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার দুপুরে ময়মনসিংহের অতিরিক্ত দায়রা  জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. ইকবাল হোসেন এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ে ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট উপজেলার আকনপাড়ার বাদশা মিয়ার ছেলে মো. রুবেল মিয়াকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও দশ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ  দেওয়া হয়।

ময়মনসিংহের সীমান্তবর্তী উপজেলা হালুয়াঘাটের আকনপাড়ার বাদশা মিয়া তার স্ত্রী, মেয়ে আমেনা খাতুন ও ছেলে মো. রুবেল মিয়াকে নিয়ে ভালুকা উপজেলার জামিরদিয়া এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করতেন। বাদশা মিয়ার স্ত্রী ও মেয়ে গার্মেন্টসে চাকরি করতেন। তিনি ২০১৪ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভাড়াটে বাসায় রুবেল মিয়া তার বোন আমেনা খাতুনকে রেখে মাটি কাটার কাজ শেষে বাসায় ফিরে দেখেন ঘরের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ রয়েছে। এ সময় ছেলে ও মেয়ে ডাকাডাকি করলে মেয়ের আত্মচিৎকার শোনে ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকতেই ছেলে তাকে কাঁচি দিয়ে আঘাত করে। এতে তিনি রক্তাক্ত জখম হন। ওই সময় চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ছুটে আসেন এবং ওড়না দিয়ে হাত-পা বাঁধা গলা কাটা অবস্থায় আমেনাকে দেখে রুবেলকে আটক করেন।

স্থানীয়দের সহায়তায় আমেনাকে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে বাবা বাদশা মিয়া বাদী হয়ে ভালুকা থানায় মেয়ে হত্যার দায়ে ছেলের বিরুদ্ধে মামলা করেন এবং রুবেলকে পুলিশে সোপর্দ করেন।