৫ দিনেও সন্ধান মেলেনি পদ্মায় ভেসে যাওয়া দম্পতির

প্রকাশ: ২৬ জুলাই ২০১৯

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি

গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়ায় পদ্মা নদীতে ভেসে যাওয়া নবদম্পতি ইমন ও আঞ্জুমের সন্ধান ৫ দিনেও মেলেনি। তাদের খোঁজ পেতে নিরন্তর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন স্বজনরা। দৌলতদিয়ার ৩ নম্বর ফেরিঘাট এলাকায় রোববার গোসল করতে নেমে তীব্র স্রোত ও ঘূর্ণিপাকে পড়ে ভেসে যান তারা। মাস ছয়েক আগে একে অপরকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন ইমন (২২) ও আঞ্জুম (১৮)।

গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস স্টেশন মাস্টার আবদুর রহমান জানান, ঘটনার পর থেকে নিখোঁজ দম্পতির সন্ধানে ফায়ার সার্ভিস, নৌ-পুলিশ ও ডুবুরি এবং স্থানীয়দের সহায়তায় উদ্ধার তৎপরতা চালানো হয়েছে। নদীতে তীব্র স্রোত থাকায় উদ্ধার কাজ কিছুটা ব্যাহত হয়েছে। এ অবস্থার মধ্যেও ট্রলার ও স্পিডবোট নিয়ে ভাটিতে ফরিদপুর ও মানিকগঞ্জের শেষ সীমানা পর্যন্ত তল্লাশি চালানো হয়েছে। কিন্তু তাদের সন্ধান মেলেনি।

নিখোঁজ দম্পতির স্বজনরা জানান, রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানখানাপুর ইজারাপাড়া গ্রামের আজিম শেখের মেয়ে আঞ্জুম ও মাদারীপুর জেলার কালকিনি উপজেলার তৌফিকচর গ্রামের মোশাররফ হোসেনের ছেলে ইমন। গত শুক্রবার আঞ্জুমের চাচাতো বোনের বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে তারা এ এলাকায় এসেছিলেন। রোববার দুপুরে তারা ১০-১২ জন পদ্মা নদীতে গোসল করতে যান। এ সময় একটি ফেরি তাদের পাশ দিয়ে চলে গেলে যে ঢেউয়ের সৃষ্টি দু'জনই মুহূর্তের মধ্যে নদীর তীব্র স্রোত ও প্রচণ্ড ঘূর্ণিপাকে তলিয়ে যায়।