ঐতিহাসিক নাজিরপুর যুদ্ধ দিবস আজ

প্রকাশ: ২৬ জুলাই ২০১৯

কলমাকান্দা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি

ঐতিহাসিক নাজিরপুর যুদ্ধ দিবস আজ। ১৯৭১ সালের ২৬ জুলাই এই দিনে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধারা কলমাকান্দা উপজেলার নাজিরপুরে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর সঙ্গে সম্মুখযুদ্ধে লিপ্ত হন। এ যুদ্ধে বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলার সাত মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হন। শহীদরা হলেন- নেত্রকোনার ডা. আবদুল আজিজ, ফজলুল হক, জামালপুরের জামাল উদ্দিন, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার নুরুজ্জামান, দীজেন্দ্র চন্দ্র বিশ্বাস, ইয়ার মাহমুদ ও ভবতোষ চন্দ্র দাস। এই সাত শহীদের মরদেহ সীমান্তবর্তী কলমাকান্দা উপজেলার লেংঙ্গুরার গনেশ্বরী নদীপাড়ের ফুলবাড়ী নামক স্থানে ১১৭২ নম্বর সীমান্ত পিলারের কাছে সমাহিত করা হয়।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার সুলতান গিয়াস উদ্দিন জানান, প্রতিবছর জেলা ও উপজেলা প্রশাসন এবং মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড যৌথ উদ্যোগে প্রতিবছর ২৬ জুলাই শহীদদের স্মরণ করে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়। এবার জেলা প্রশাসনের আয়োজনে আজ শুক্রবার নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালিত হচ্ছে।

ইউএনও মো. জাকির হোসেন জানান, কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সকাল সাড়ে ১০টায় নাজিরপুর স্মৃতিসৌধে এবং দুপুর ১২টায় লেংঙ্গুরায় সাত শহীদের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে। এ ছাড়া বাদ জুমা লেংঙ্গুরা জামে মসজিদে এবং একই সময়ে স্থানীয় মন্দির ও গির্জায় বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হবে। পরে বিকেলে লেংঙ্গুরা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে হবে মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশ ও আলোচনা সভা। নেত্রকোনার জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলামের সভাপতিত্বে ও ইউএনও মো. জাকির হোসেনের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন নেত্রকোনা-১ আসনের সংসদ সদস্য মানু মজুমদার।

বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার রায়, পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী, ৩১ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. শাহজাহান সিরাজ, নেত্রকোনা পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম খান, মুক্তিযোদ্ধা সুলতান গিয়াস উদ্দিন প্রমুখ।