মদনে অন্তঃসত্ত্বা বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরীর মামলা

প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০১৯

মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি

মদন পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের জাহাঙ্গীরপুর দেওয়ার পাড়ার বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরী চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় তার মা বৃহস্পতিবার মদন থানায় ধর্ষক আনজু মিয়াকে আসামি করে মামলা করেছেন। পুলিশ ধর্ষিতাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বৃহস্পতিবার নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

৮নং ওয়ার্ডের ভিকটিমের পাশের বাড়ির রাশিদ আলীর ছেলে ৪ সন্তানের জনক আনজু কসাই প্রলোভন দিয়ে কিশোরীকে তার নিজ ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ ঘটনা কাউকে না বলতে কিশোরীর পরিবারকে হত্যার হুমকি দেয় সে। এর পর আরও দু-তিন দিন একই কায়দায় তাকে ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে কিশোরী অসুস্থ হয়ে পড়লে তার চাচির কাছে ঘটনা বলে। পরে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

পরিবারের লোকজন পৌর কাউন্সিলর মাসুদ রানাকে এ বিষয়টি জানালে তিনি দু'জনকে একত্র করে রহস্য উদ্ঘাটনের চেষ্টা চালান। কিন্তু ধর্ষক অস্বীকার করায় ঘটনাটি জটিলতার সৃষ্টি হয়। তিনি থানায় অভিযোগ করতে ধর্ষিতার পরিবারকে বলেন। পরে মদন থানায় ধর্ষক আনজু কসাইকে আসামি করে

মামলা করেন।