নৌবাহিনী সদস্য শিক্ষার্থীসহ আট জেলায় নিহত ৯

প্রকাশ: ১০ আগস্ট ২০১৯      

সমকাল ডেস্ক

সড়ক দুর্ঘটনায় ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ, নোয়াখালী, নেত্রকোনা, বগুড়ার শেরপুর, টাঙ্গাইলের মির্জাপুর, গাজীপুরের কালিয়াকৈর, নাটোরের বড়াইগ্রাম ও নারায়ণগঞ্জে কলেজছাত্র এবং নৌবাহিনী সদস্যসহ ৯ জন নিহত হয়েছেন। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

ঝিনাইদহ :কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজার এলাকায় রাস্তা পারাপারের সময় শুক্রবার দুপুরে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে সিরাজুল ইসলাম নামে এক নছিমনচালক নিহত হয়েছেন। তিনি ঝিনাইদহ শহরের মডার্নপাড়ার বাসিন্দা।

নোয়াখালী :চাটখিল উপজেলার রামগঞ্জ-সোনাইমুড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কে মাইক্রোবাস চাপায় এক শিশু নিহত হয়েছে। নিহত শিশু হচ্ছে চাটখিল উপজেলার বক্তারপুর গ্রামের শামছুল হকের ছেলে মো. রাজন। শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে চাটখিল উপজেলা পরিষদের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নেত্রকোনা :শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি সড়কে জারিয়া-ঝানজাইল ব্রিজের ওপর শুক্রবার বালুবাহী ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ভ্যানচালক আল আমিন ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। তিনি ঝানজাইল বাজারের খানপাড়া গ্রামের সুরুজ আলীর ছেলে।

শেরপুর (বগুড়া) :আঞ্চলিক সড়কে ট্রাকচাপায় সোহান হাসান নামের এক কলেজছাত্র নিহত হয়েছেন। তিনি পৌর শহরের শান্তিনগর এলাকার নুরুন্নবীর ছেলে। বিকেলে মোটরসাইকেলে যাওয়ার সময় উপজেলার শেরপুর-রানীরহাট সড়কের আড়ংশাইল নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) :মির্জাপুরে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ দু'জন নিহত হয়েছে। নিহতরা হলেন- নাটোরের আটদিঘা এলাকার বাসিন্দা নৌবাহিনী ঢাকা সদর দপ্তরের কর্মরত করপোরাল নাজমুল হোসেন ও পার্শ্ববর্তী বাসাইল উপজেলার কাঞ্চনপুর গ্রামের শামীম আল মামুনের মেয়ে সামিয়া আক্তার। এ ছাড়া সকালে নানারবাড়ি মির্জাপুর উপজেলার মুশুরিয়াঘোনা থেকে চাচা শাহিন মিয়ার সঙ্গে মোটরসাইকেলে বাড়িতে যাচ্ছিল সামিয়া আক্তার। পথে কদিমধল্যা বাসস্ট্যান্ডে একটি বাস মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই সামিয়া মারা যায়।

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) :শ্রীফলতলীতে শুক্রবার সকালে বাসচাপায় সুফিয়া বেগম নামের এক নারী নিহত হয়েছেন। মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে গেলে একটি বাস চাপা দেয় তাকে। সুফিয়া টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার হারিয়া গ্রামের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ছবুর মিয়ার স্ত্রী।

বড়াইগ্রাম (নাটোর) :দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে মেহেদী হাসান নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। টাঙ্গাইল থেকে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন। শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলা সীমান্তে পাবনা-নাটোর মহাসড়কের গোধরা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মেহেদী শার্শা উপজেলার আমলাই গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে।

নারায়ণগঞ্জ :সড়ক দুর্ঘটনায় তসলিম হোসেন নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। শুক্রবার ফতুল্লার সাইনবোর্ড এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সন্ধ্যার দিকে তিনি মারা যান। তসলিম হোসেন নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার আব্দুর রবের ছেলে।