এটিএম বুথে নিরাপত্তাকর্মী হত্যা

ঈদসামগ্রী দেওয়া হলো জাহাঙ্গীরের পরিবারকে

প্রকাশ: ১০ আগস্ট ২০১৯      

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

ঈদে সন্তানদের জন্য নতুন জামাকাপড় হাতে বাড়ি ফেরার বদলে ঈশ্বরগঞ্জের জাহাঙ্গীর আলম ফিরেছেন লাশ হয়ে। বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় নিহতের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে উপজেলা প্রশাসন। শুক্রবার নিহত জাহাঙ্গীরের পরিবারের কাছে ঈদসামগ্রী ও নগদ টাকা প্রদান করা হয়।

উপজেলার চরপুম্বাইল গ্রামের মুহাম্মদ আলীর ছয় সন্তানের মধ্যে একমাত্র ছেলে জাহাঙ্গীর আলম। মিলিনিয়াম কর্টিজ সিকিউরিটি বাংলাদেশ লিমিটেডের অধীনে গাজীপুর মহানগরীর বোর্ডবাজার এলাকায় এবি ব্যাংকের এটিএম বুথে নিরাপত্তাকর্মীর কাজ করতেন। বুধবার ভোরে এবি ব্যাংকের ওই শাখার এটিএম বুথে আক্রমণ করে দুর্বৃত্তরা। নিরাপত্তাকর্মী জাহাঙ্গীরকে হত্যা করে। খবর পেয়ে মহানগরীর গাছা থানার পুলিশের দল ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে বুধবার বিকেলে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে।

চার মেয়ে ও এক ছেলের জনক জাহাঙ্গীরের এমন মৃত্যু নিয়ে শুক্রবার সমকালের লোকালয় পাতায় 'অন্ধকার নেমে এসেছে জাহাঙ্গীরের পরিবারে' শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদটি নজরে পড়ে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উম্মে রুমানা তুয়ার। তিনি ব্যক্তিগত অর্থায়নে জাহাঙ্গীরের পরিবারের মাঝে চাল, তেল, দুধ, চিনিসহ বিভিন্ন সামগ্রীসহ পাঁচ হাজার টাকা পাঠান।