মাছ আহরণে নিষেধাজ্ঞা

সুন্দরবনের জেলে পরিবারে ঈদ আনন্দ মল্গান

প্রকাশ: ১১ আগস্ট ২০১৯      

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

নিষেধাজ্ঞার ফাঁদে আটকা পড়েছে সুন্দরবন উপকূলের ত্রিশ হাজার জেলে। মৎস্য অধিদপ্তরের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হলেও বন বিভাগের নিষেধাজ্ঞার কারণে সুন্দরবন উপকূলের নদ-নদীতে এখনও ইলিশ শিকারে নামতে পারেননি এ অঞ্চলের জেলেরা। নৌকা-জাল মেরামত, সংস্কারসহ পুঁজি বিনিয়োগ করেও ঘরে বসে থাকতে হচ্ছে তাদের। এ অবস্থায় আর্থিক সংকটসহ অভাব-অনটনে জেলে পরিবারগুলো মানবেতর দিন কাটাছে। আর এ অবস্থায় আসন্ন ঈদুল আজহার আনন্দও মল্গান হতে চলেছে তাদের।

সাগর ও নদীতে ৬৫ দিনের ইলিশ আহরণে সরকারি নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়েছে গত ২৩ জুলাই। এর পর সাগর ও নদীতে ফের ইলিশ ধরতে প্রস্তুতি নিলেও এবার বন বিভাগের নিষেধাজ্ঞার ফাঁদে পড়েছেন তারা। একই সঙ্গে মৎস্য আহরণের পাস-পারমিট প্রদানও দুই মাসের জন্য বন্ধ রাখা হয়। এতে বিপাকে পড়েন সুন্দরবন উপকূলের ইলিশ জেলেরা।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের চাঁদপাই স্টেশন কর্মকর্তা কামরুল হাসান জানান, বনের অভ্যন্তরে নদী-খালে এখন সামদ্রিকসহ দেশীয় বিভিন্ন প্রজাতির মাছের প্রজনন মৌসুম চলছে। এ কারণে বনাঞ্চলের অভ্যন্তরীণ নদ-নদীতে সব ধরনের মৎস্য আহরণে গত ১৭ জুলাই  থেকে দুই মাসের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।