নৌকাডুবিতে বরযাত্রীসহ নিহত ৩ নারী

প্রকাশ: ১৫ আগস্ট ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

জামালপুরের সরিষাবাড়ী ও হবিগঞ্জের মাধবপুরে পৃথক নৌকাডুবির ঘটনায় বরযাত্রীসহ তিন নারী প্রাণ হারিয়েছেন। দুই ঘটনায় ২২ জন উদ্ধার এবং নিখোঁজ রয়েছেন তিনজন।

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) :ভাতিজার বিয়ের দাওয়াতে যাওয়ার পথে যমুনা নদীতে নৌকা ডুবে রেনুকা বেগম নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ সদস্যসহ তিনজন নিখোঁজ ও ১২ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। আহতদের সরিষাবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার দুপুর ১টার দিকে সরিষাবাড়ী উপজেলার পার্শ্ববর্তী সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার মুনসুরনগর ইউনিয়নের ছিন্ন্যারচর গ্রাম এলাকার যমুনা নদীতে নৌকাডুবির ঘটনাটি ঘটে।

নিহত রেনুকা বেগম সাতপোয়া ইউনিয়নের চর আদ্রা গ্রামের জাভেদ তরফদারের স্ত্রী। এ ঘটনায় জাভেদ তরফদার ও একই গ্রামের দুদু মিয়ার ছেলে ময়মনসিংহের ডিআইজির নিরাপত্তা কর্মী বেল্লাল হোসেন ও মস্তফা মিয়া নিখোঁজ রয়েছেন।

উদ্ধারকৃতরা হলেন- সেনাসদস্য বিপুল মিয়া, লিমন মিয়া, আঁখি আক্তার, মনজুরুল ইসলাম লানজু, সানজিদা, মোস্তাক, মঞ্জুরা, সাইদুর, লাইলি, মোন্তাজ, আলম মিয়া, নাঈম মিয়া ও জিহাদ হোসেন।

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) :মাধবপুরের হাওরে নৌকা ডুবে দুই নারীর মৃত্যু ও কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার বুল্লা ইউনিয়নের ধনকুড়া হাওরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার চিতনা গ্রামের ফজল হকের স্ত্রী সায়েরা খাতুন ও একই গ্রামের মৃত মনসুর আলীর স্ত্রী সৈয়দ বানু। আহত আক্কাছ মিয়ার স্ত্রী আনু বেগম, মাহমুদা বেগম ও সাফিয়া বেগমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত সায়েরার ছেলে আক্কাছ মিয়া জানান, ওইদিন চিতনা গ্রাম থেকে একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকা ভাড়া করে ৩০ জন আরোহী নিয়ে আখাউড়া খড়মপুর মাজার ওরসে যাওয়ার সময় মাধবপুর উপজেলার ধনকুড়া হাওরে পৌঁছলে যাত্রীদের চাপে নৌকাটি ডুবে যায়। যাত্রীরা নৌকা থেকে দ্রুত নামতে গিয়ে হতাহতের ঘটনা ঘটে।