কালীগঞ্জে স্কুলছাত্রী ধর্ষণকারীদের বিচার দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশ: ২৫ আগস্ট ২০১৯

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি

কালীগঞ্জে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টাকারীদের বিচার দাবিতে বারোবাজারের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হাজার হাজার ছাত্রছাত্রী সড়কে মানববন্ধন করেছে। শনিবার সকালে যশোর-ঝিনাইদহ মহাসড়কের দু'পাশে ঘণ্টাব্যাপী দাঁড়িয়ে তারা এ মানববন্ধন করে। মানববন্ধনে এলাকার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা চিহ্নিত ধর্ষকদের বিচার দাবি সংবলিত ব্যানার, প্ল্যাকার্ড ও ফেস্টুন প্রদর্শন করে।

গত ২১ আগস্ট রাতে উপজেলার বারোবাজার স্কুলের সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে হাসিলবাগ গ্রামের প্রিন্স, নয়নসহ তিনজন তুলে নিয়ে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে ধর্ষণ করে। পুলিশ ঘটনার রাতেই অভিযান চালিয়ে মূল অভিযুক্ত প্রিন্স ও নয়নকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় বিভিন্ন মহলে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার সকালে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মানববন্ধনে অভিভাবক, জনপ্রতিনিধি, সুধীজনসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করে একাত্মতা ঘোষণা করেন। এ সময় ধর্ষকদের বিচার দাবিতে বক্তব্য দেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম, শিক্ষার্থী জলি আক্তার, লিপি খাতুন, আসমা পারভীন প্রমুখ।