ঈশ্বরগঞ্জে কথাকাটাকাটির জের ধরে তিন কলেজছাত্রকে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছে। আহত অবস্থায় ওই ছাত্রদের ময়মনসিংহ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে রোববার আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ।

আঠারবাড়ি ইউনিয়নের মহেশ্চাতুল গ্রামের রাসেল, সাকিব ও তালিম স্থানীয় আঠারবাড়ি ডিগ্রি কলেজে উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণিতে পড়ালেখা করে। গত শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে যায় তেলুয়াড়ি পিকআপ স্ট্যান্ড এলাকায়। সেখানে দেখা হয় তাদের সহপাঠী তেলুয়াড়ি গ্রামের ইসমাইল মিয়ার ছেলে সাইফুল ইসলামের সঙ্গে। কলেজে পূর্ববিরোধ থাকায় রাসেলদের দেখে বাকবিতণ্ডায় জড়ায় সাইফুল। একপর্যায়ে চাকু দিয়ে আঘাত করতে শুরু করে রাসেলকে। রাসেলকে রক্ষা করতে গেলে সাকিব ও তালিমকেও চাকু দিয়ে আঘাত করা হয়। স্থানীয় লোকজন ছুটে এলে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে সাইফুল। পরে স্থানীয়রা রক্তমাখা চাকুসহ তাকে নিয়ে যায় আঠারবাড়ি পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের পুলিশের কাছে।

রক্তাক্ত অবস্থায় তিন কলেজছাত্রকে দ্রুত উদ্ধার করে প্রথমে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ওই ঘটনায় আহত কলেজছাত্র সাকিবের বাবা সবুজ মিয়া বাদী হয়ে ঈশ্বরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় সাইফুলকে গ্রেফতার দেখিয়ে গতকাল আদালতে সোপর্দ করা হয়।

মন্তব্য করুন