মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি শ্রমিকের মৃত্যুতে স্বজনদের আহাজারি

প্রকাশ: ১০ অক্টোবর ২০১৯      

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

স্বামী হারানোর শোকে বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন স্ত্রী। মা পাগলপ্রায়। বাবা বাকরুদ্ধ। দরিদ্র পরিবারে সচ্ছলতা আনতে তিন সন্তানের জনক হয়েও এক বছর আগে মালয়েশিয়ায় পাড়ি দিয়েছিলেন ত্রিশাল উপজেলার সদর ইউনিয়নের কোনাবাড়ী গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমান। প্রবাসজীবনের এক বছর কয়েক দিনের মধ্যে গত সোমবার রাতে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি ওই দেশে মারা যান।

২০১৮ সালে ছিদ্দিকুর রহমান মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমান। মঙ্গলবার সকালে সহকর্মী এরশাদুল্লাহর ফোনে ছিদ্দিকের মৃত্যুর খবর জানতে পারেন স্বজনরা। তিনি পরিবারকে জানান, মালয়েশিয়ায় কারখানার ডিউটি শেষ করে সোমবার রাতের খাবার খেয়ে নিজ রুমে ঘুমাতে যান ছিদ্দিক। মঙ্গলবার ডিউটিতে যাওয়ার সময় পার হয়ে গেলেও তার সাড়াশব্দ না পেয়ে সহকর্মীরা ওই রুমে গিয়ে দেখেন, তার লাশ পড়ে আছে। ছোট ভাই মাওলানা আবুল বাশার জানান, ভাইয়ের লাশ দেশে আনার জন্য মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশনারের কাউন্সিলর (শ্রম), প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক জনশক্তি অফিসসহ যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দেওয়া হয়েছে।