জাল দলিল রেজিস্ট্রি মির্জাপুরে সাংবাদিকসহ ৯ জন জেলে

প্রকাশ: ২০ নভেম্বর ২০১৯      

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে জমির পরচা, খাজনার দাখিলা ও ওয়ারিশান সনদ জাল করে কয়েক কোটি টাকা মূল্যের জমি পাওয়ারনামা দলিল রেজিস্ট্রি করার দায়ে এক সাংবাদিকসহ নয়জনকে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার টাঙ্গাইলের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে ১১ আসামি হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন। আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আকরামুল ইসলাম দু'জনের জামিন মঞ্জুর করেন এবং অন্য নয়জনের জামিন নামঞ্জুর করে তাদের জেলহাজতে পাঠান।

যাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে তারা হলো- উপজেলার গোড়াই শিল্পাঞ্চল এলাকার আবু আহাদ খান পিন্টু, আজগর আলী, উথান খান, শহিদুল ইসলাম, বিল্লাল হোসেন, ভাওড়া ইউনিয়নের বাসিন্দা ও বিজয় টিভির স্থানীয় প্রতিনিধি মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক, মির্জাপুর পৌর এলাকার মজনু মিয়া, বংশাই রোডের জিয়াউর রহমান এবং বাজার এলাকার সোহেল রানা। জামিনপ্রাপ্তরা হলো দলিল লেখক ইকবাল হোসেন ও মোস্তফা মিয়া।

জানা যায়, টাঙ্গাইল সদরের আকুরটাকুর মুসলিমপাড়ার বাসিন্দা শামস উদ্দিনের স্ত্রী তাসমুবা খানম বেলি তার অন্য তিন বোন নাসরিন খানম এনি, ছালমা খানম মেরী ও তানিয়া খানম এলি পৈতৃকসূত্রে মালিক হয়ে গোড়াই মমিননগর মৌজার ৪১২ শতাংশ জমি দীর্ঘদিন ধরে ভোগদখল করে আসছেন। আসামিরা এর মধ্যে ১০০ শতাংশ জমি পাওয়ারনামা দলিল করে নেন, যার মূল্য প্রায় চার কোটি টাকা বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন।