বগুড়ায় আ'লীগ কর্মীকে গলা কেটে হত্যা

প্রকাশ: ২২ অক্টোবর ২০২০

বগুড়া ব্যুরো

বগুড়ার শিবগঞ্জে মোস্তাফিজার রহমান মোস্তা (৫২) নামে এক আওয়ামী লীগ কর্মীকে হাত-পা ভেঙে ও গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল

বুধবার সকালে উপজেলার পশ্চিম জাহাঙ্গীরাবাদ গ্রামে বাড়িসংলগ্ন পুকুর পাড় থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

মোস্তাফিজার ওই গ্রামের আকবর আলীর ছেলে। তিনি শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ও একই ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বার ছিলেন। স্থানীয় এমএবি ইটভাটার মালিক তিনি।

নিহতের স্বজনের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর মোস্তাফিজার বাড়ি থেকে এক কিলোমিটার দূরে আলাদীপুরে তার ইটভাটায় যাওয়ার কথা বলে বের হন। গভীর রাতেও বাড়ি না ফেরায় তার মোবাইল ফোনে কল করেন স্ত্রী। তবে কেউ কল রিসিভ করেনি। গতকাল সকালে বাড়িসংলগ্ন পুকুরপাড়ে তার লাশ দেখতে পান প্রতিবেশীরা। পরে থানায় খবর দেওয়া হয়। স্থানীয়রা জানায়, পুকুরপাড়ে লাশ পাওয়া গেলেও সেখানে তাকে হত্যা করার কোনো আলামত নেই। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে অন্য কোথাও হত্যা করে লাশ সেখানে ফেলে রাখা হয়। নিহতের হাত-পায়ের রগ কাটা ছাড়াও মাথায় আঘাতের চিহ্ন এবং পা ভাঙা ছিল।

স্থানীয়রা আরও জানায়, মোস্তাফিজার এক সময় অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিলেন। সে সময় তার নামে ছিনতাই, ডাকাতি, চোরাচালান ছাড়াও বিভিন্ন অভিযোগে একাধিক মামলা ছিল। পরে তিনি সেখান থেকে বেরিয়ে ব্যবসা শুরু করেন। এ ছাড়া তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য হন।

শিবগঞ্জ থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান জানান, তাৎক্ষণিকভাবে হত্যার কারণ বা কারা হত্যা করেছে জানা যায়নি। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।