রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার ঢোলজানি গ্রামে সরিষা ক্ষেত থেকে হত্যা মামলার আসামির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে বেয়াইকে হত্যার দায়ে অভিযুক্ত নীলকমল মণ্ডলের লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। নীলকমল একই ইউনিয়নের পার্শ্ববর্তী পারুলিয়া গ্রামের হারান চন্দ্র মণ্ডলের ছেলে।

জানা গেছে, ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার নববন গ্রামের বাসিন্দা তার বেয়াই নির্মল কুমার মিত্রকে হত্যার অভিযোগে নীলকমলের বিরুদ্ধে মধুখালী থানায় একটি হত্যা মামলা করা হয়। এরপর থেকে তিনি পলাতক ছিলেন।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারিকুজ্জামান জানান, রাত ৮টার দিকে খবর পেয়ে ঢোলজানি গ্রামের একটি সরিষা ক্ষেত থেকে নীলকমল মণ্ডলের লাশ উদ্ধার করা হয়। তার লাশের পাশে একটি কীটনাশকের বোতল পাওয়া গেছে। এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে, তিনি আত্মহত্যা করেছেন। ফরিদপুরের মধুখালী থানায় করা একটি হত্যা মামলার আসামি তিনি। ময়নাতদন্তের পর তার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। এ ব্যাপারে অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

মধুখালীর মেগচামী ইউপি চেয়ারম্যান হাসান আলী খান জানান, নীলকমল অন্যের স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্কের জেরে তার বেয়াই নির্মল কুমার মিত্রকে হত্যা করেছেন বলে শুনেছেন। বিষয়টি এলাকায় জানাজানির পর মধুখালী থানায় মামলা হয়। ফরিদপুরের মধুখালী থানার ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, তার লাশ উদ্ধারের বিষয়টি জানতে পেরেছি।

মন্তব্য করুন