বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব প্রান্ত থেকে এলেঙ্গা পৌরসভার পৌলী ব্রিজ পর্যন্ত প্রায় ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। ঘন কুয়াশার কারণে বুধবার রাত ১২টা থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত তিন দফা সেতুতে টোল আদায় বন্ধ থাকে। প্রচণ্ড শীতে আটকে থাকা যানবাহনের হাজার হাজার যাত্রী দুর্ভোগে পড়েন। দিনভর থেমে থেমে যানবাহন চলাচল করে। পরে বিকেল ৪টার পর যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

বঙ্গবন্ধু সেতু-পূর্ব ট্রাফিক বিভাগের ইন্সপেক্টর ইফতেখার নাসির রোকন জানান, ঘন কুয়াশার কারণে চালকরা যানবাহন ঠিকমতো চালাতে পারছিলেন না। এ ছাড়াও সেতুর পশ্চিম প্রান্ত সিরাজগঞ্জের কড্ডার মোড়ে মহাসড়কের নির্মাণকাজ চলায় রাস্তার এক লেন দিয়ে চলতে হচ্ছে। এ কারণে ঠিকমতো গাড়ি টানতে না পারায় সেতুর পূর্ব প্রান্তে যানজটের সৃষ্টি হয়।

ঘন কুয়াশা ও যানজটের কারণে সেতুর টোল প্লাজা তিন দফা বন্ধ রাখতে হয়। তা ছাড়াও নিয়ম না মেনে চালকরা ওভারটেকিং করে সামনে থেকে আসা গাড়ির রাস্তা বন্ধ করে দেয়। ফলে বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব প্রান্ত থেকে ঢাকার দিকে পৌলী ব্রিজ পর্যন্ত প্রায় ২০ কিলোমিটার এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। যানজটে আটকে থেকে বেশি দুর্ভোগ পোহান নারী ও শিশুরা। বেলা ৩টা পর্যন্ত যানজট অব্যাহত ছিল। পরে পুলিশের তৎপরতায় বিকেল ৪টা থেকে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক হয়।

মন্তব্য করুন