আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে খাস জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে এক কোম্পানির বিরুদ্ধে। উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের মেঘনা শিল্পনগরীর ইসলামপুর এলাকার আনন্দ শিপইয়ার্ডের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ওই জমিতে তারা টিনশেড ঘর নির্মাণ করে দখল করে নিচ্ছে বলে অভিযোগ।

উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের ইসলামপুর এলাকার চর রমজান সানাউল্লাহ মৌজার ১৫৭ শতাংশ জমি আল মোস্তাফা গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হেরিটেজ পলিমার অ্যান্ড ল্যামি টিউবস লিমিটেড সরকারের কাছ থেকে বন্দোবস্ত নিয়ে ভোগদখল করে আসছিল। পরে আনন্দ শিপইয়ার্ড অ্যান্ড স্পিওয়েজ লিমিটেড নামের কোম্পানির লোকজন ওই জমি বাউন্ডারি দেয়াল দিয়ে দখল করে। এ নিয়ে উভয় পক্ষ আদালতে মামলা করে। আদালত ওই জমিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। এ নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রাতে আঁধারে দেশি অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আনন্দ শিপইয়ার্ড বিরোধপূর্ণ জমিতে ঘর নির্মাণ করে জবর-দখলের চেষ্টা করে। আল মোস্তফা গ্রুপের অপারেশন ম্যানেজার জাহিদুল ইসলাম বলেন, এ জমিটি আমাদের কোম্পানি সরকারের কাছ থেকে ৯৯ বছরের জন্য বন্দোবস্ত নিয়েছে। আনন্দ শিপইয়ার্ড ওই জমি জোরপূর্বক সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে বাউন্ডারি দেয়াল নির্মাণ করে দখলে নিয়েছে। বাধা দেওয়ায় আমাদের ওপর হুমকি দিয়ে আসছে।

অভিযুক্ত আনন্দ শিপইয়ার্ডের ম্যানেজার দুলাল মিয়া বলেন, এ জমিটি আমাদের দখলে রয়েছে। আমাদের ফাঁকি দিয়ে লিজ নেওয়ার চেষ্টা করেছে। এ নিয়ে আমরা মামলা দায়ের করেছি।

মন্তব্য করুন