ফরিদপুরের সালথায় জমি নিয়ে দু'পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার ভাওয়াল ইউনিয়নের শিহিপুর গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে আছিরউদ্দিন ও মতিয়ার মাতুব্বর নামে দুই ভাইয়ের মধ্যে জমি নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতি হলে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। সংঘর্ষে শিহিপুর গ্রামের আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাবেক দুই ইউপি সদস্য কোহিনুর ও ইউসুফের সমর্থকরাও জড়িয়ে পড়ে। এ সময় উভয় পক্ষের শত শত লোক দেশি অস্ত্র ঢাল, কাতরা, ভেলা, সড়কি ও টেঁটা নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

দুই ঘণ্টাব্যাপী চলা এ সংঘর্ষে ব্র্যাক স্কুলসহ প্রায় ২০টি বসতঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের বিশু মোল্যা, বাবুল মোল্যা, মিজান মোল্যা, জাকির মোল্যা, নুরু মিয়া, দবির মোল্যা, ইউসুফ মাতুব্বর, হবি মাতুব্বর, রহিম মাতুব্বর, তোতা মাতুব্বর, সজীব মোল্যা, তারেক মাতুব্বর, কোহিনুর মাতুব্বরসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়। তাদের নগরকান্দা ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে সালথা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করে সালথা থানার ওসি (তদন্ত) সুব্রত গোলদার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। ওই গ্রামের পরিবেশ শান্ত রাখতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন