ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আবুল খায়েরের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম রবি বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে বৃহস্পতিবার দুপুরে মামলাটি করেন।

উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আবুল খায়ের গত ১৩ ফেব্রুয়ারি ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। পৌরসভার দত্তপাড়া গ্রামের হাসান মিয়া নামের এক যুবককে কুপিয়ে জখম করার বিষয়ে একটি স্ট্যাটাস দেওয়া হয়। একই স্ট্যাটাস দেন যুবলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম রুবেল। সেই স্ট্যাটাসে উল্লেখ করা হয়, 'ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার চিহ্নিত গডফাদার, শীর্ষ সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী, রাজাকারপুত্র মাহবুব, কাঞ্চন, জাহাঙ্গীর, রবি, বাপ্পা, কায়সার আহমেদ সুমন গংয়ের নেতৃত্বে দত্তপাড়ার সন্তান হাসানকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে জখম করা হয়। ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি প্রশাসনের কাছে বিচার দাবি করে।' স্ট্যাটাসটি নজরে আসে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম রবির। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার মামলা করেন তিনি। রফিকুল ইসলাম রবি বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে যেন রাজনীতি করতে পারি সে জন্য মামলা করেছি।

ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আবুল খায়ের বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন