নারায়ণগঞ্জে একটি বাড়ির ছাদে গ্যাস বিস্ফোরণে ভবনের এক নিরাপত্তাকর্মী নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম উজ্জ্বল। সোমবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে উজ্জ্বল মারা যান। ওই ঘটনায় তার সহকর্মী মানিক ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। রোববার রাতে নগরের প্রেসিডেন্ট রোডে জিএম গার্ডেন নামের একটি বহুতল ভবনের ছাদে এ ঘটনা ঘটে।

বাড়ির বাসিন্দারা জানান, ছাদের একটি কক্ষে গ্যাসের সংযোগ ছিল, যেটি বাড়িতে কোনো অনুষ্ঠানের আয়োজন হলে সেখানে রান্নার কাজে ব্যবহার করা হতো। সেই গ্যাসের লাইন লিকেজ হলে তা থেকে বিস্ফোরণ ঘটেছে।

ভবনের অন্য প্রহরী মোহাম্মদ আলী জানান, অষ্টম তলায় গ্যাসের লাইনে সমস্যা ছিল। এজন্য এক মিস্ত্রি এসে সেটা মেরামত করেন। একপর্যায়ে দু'জন নিচে নেমে যান। তখন রান্নাঘরের দরজা-জানালা বন্ধ ছিল। পরে আবার দু'জন সিগারেট হাতে উপরে উঠে রুমে প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গেই বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণে উজ্জ্বল ও মানিক দগ্ধ হন। তাদের নারায়ণগঞ্জ দেড়শ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দিয়ে রাতেই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে সোমবার দুপুরে উজ্জ্বল সেখানে মারা যান।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের নারায়ণগঞ্জের উপসহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফীন জানান, মূলত বাড়ির ছাদের একটি কক্ষে গ্যাসের সংযোগ ছিল, যেটি ওই ভবনের বাসিন্দাদের কোনো অনুষ্ঠান থাকলে সেখানে রান্নার কাজে ব্যবহার করা হতো। সেখানে কোনো কারণে গ্যাসের লাইনটি চালু থাকায় গ্যাস নির্গত হয়ে কক্ষে জমে গিয়েছিল। সেখানে সিগারেটের অংশ পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, কোনো দাহ্য কিছু জ্বালানোর কারণেই এই বিস্ফোরণ হয়েছে। এতে দু'জন দগ্ধ হয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ দেড়শ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের আরএমও আসাদুজ্জামান জানান, দগ্ধ দু'জনকেই প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন