এক বছর দুই মাসের অধিক সময় বিনা ছুটিতে অনুপস্থিত থেকে কলেজ শিক্ষক পদে বহাল তবিয়তে রয়েছেন জেলার দেওয়ানগঞ্জের হাতিভাঙ্গা মোফাজ্জল মিঞা মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের উচ্চতর গণিতের প্রভাষক আকবর হোসাইন। তিনি ২০২০ সালের ৩০ জানুয়ারি থেকে তার পরিচালনা করা সমবায় সমিতির অর্থ কেলেঙ্কারির ঘটনায় পলাতক।

জানা যায়, উপজেলার হাতিভাঙ্গা মোফাজ্জল মিঞা মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের ওই প্রভাষক সমাজসেবার নাম করে কাঠার বিল বাজারে যমুনা বহুমুখী সমবায় সমিতি গড়ে তোলেন। সমিতিটি ২০০৬ সালে সমবায় অধিদপ্তর থেকে নিবন্ধন পায়। প্রাথমিক পর্যায়ে সুনামকে পুঁজি করে ওই সমিতির মাধ্যমে গ্রাহকদের ৪০ কোটি টাকার অধিক আমানত গ্রহণ করে এবং সে আমানতের অর্থ লোপাট করে আত্মগোপন করেন ওই সমিতির পরিচালক প্রভাষক আকবর হোসাইন। এ নিয়ে গত ২৬ মার্চ সমকালে 'সমিতির ৪০ কোটি টাকা লোপাট' শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

কলেজ সূত্রে জানা যায়, প্রভাষক আকবর হোসাইন ২০২০ সালের ২৯ জানুয়ারি কলেজে উপস্থিত থেকে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করেন। ২০২০ সালের ৩০ জানুয়ারি থেকে আজ পর্যন্ত বিনা ছুটিতে আত্মগোপন রয়েছেন, কলেজে আসছেন না। ৪০ কোটি টাকা আত্মসাৎ করে লাপাত্তা হলেও এখন পর্যন্ত তিনি চাকরিতে বহাল তবিয়তে রয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা। অবশ্য কলেজ সূত্র জানায়, আকবরকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা না হলেও কয়েক মাস থেকে তার নামে বেতন-ভাতা দেওয়া হচ্ছে না।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মেহের উল্লাহ জানান, প্রতিষ্ঠানে বিনা ছুটিতে এতদিন অনুপস্থিত থাকলে তার চাকরি থাকার কথা নয়।

হাতিভাঙ্গা মোফাজ্জল মিঞা মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আনিছুর রহমান জানান, প্রভাষক আকবর দীর্ঘদিন অনুপস্থিত থাকার কারণে কলেজ ম্যানেজিং কমিটি তাকে সাসপেন্ড করেছে। কয়েক মাস থেকে তাকে বেতন-ভাতা দেওয়া হচ্ছে না। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে ম্যানেজিং কমিটি। ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ইস্তিয়াক হোসেন দিদার জানান, ওই প্রভাষককে সাসপেন্ড করে বিল বেতন স্থগিত করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন