বাড়ির মালিক বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ায় আশ্রয়হীন হয়ে মধ্যরাতে রাস্তায় ঘুরছিলেন এক নারী। এ সময় মুলাইদ গ্রামের নজুম উদ্দিন ফকিরের ছেলে মিজান ফকির ওই নারীকে আশ্রয় দেবে বলে একটি কক্ষে নিয়ে যায়। তার সঙ্গে যুক্ত হয় আরও চার-পাঁচ যুবক। রাতে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর তারা দুপুরে ছেড়ে দেয় নারীকে। শ্রীপুরের তেলিহাটী ইউনিয়নের মুলাইদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গতকাল মঙ্গলবার অভিযুক্ত সুলতান উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, ওই নারী স্থানীয় এক বাড়িতে ভাড়া থাকেন। আপত্তিকর নানা অপবাদ নিয়ে গত শনিবার রাতে বাড়ির মালিক তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

শ্রীপুর থানার ওসি (অপারেশন) গোলাম সারওয়ার জানান, মঙ্গলবার থানায় ওই নারী মিজান ফকির, একই এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে সুলতান উদ্দিন, সুরুজ মিয়ার ছেলে সাদ্দাম হোসেন সুবল ও জনৈক রানাকে আসামি করে মামলা করেন।

ওসি খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, অভিযুক্ত সুলতান উদ্দিনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে

মন্তব্য করুন