কাশিয়ানী উপজেলার সরকারি রামদিয়া এস. কে. কলেজের জায়গা দখল করে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে কানন বালা নামের এক নারীর বিরুদ্ধে। সম্পত্তিটি কলেজের সীমানার বাইরে থাকায় স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালী দখল করে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে তাকে হস্তান্তর করেছেন।

স্থানীয়দের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরেই রামদিয়া এস. কে. কলেজের জায়গা দখল করে নিচ্ছে একটি প্রভাবশালী চক্র। তারা আবার সেই সম্পত্তি মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দিচ্ছে। দখল করা জায়গায় বসতঘর, দোকানপাট, পাকা স্থাপনা গড়ে তোলা হচ্ছে। এভাবে দখল কার্যক্রম চলতে থাকলে এক সময় সরকারি রামদিয়া এস. কে. কলেজের জায়গার অস্তিত্ব পাওয়া যাবে না বলে আশঙ্কা তাদের। এদিকে, দীর্ঘদিন ধরে এ অবস্থা চলতে থাকলেও সম্পত্তি উদ্ধারে সংশ্নিষ্ট কর্তৃপক্ষের কোনো উদ্যোগ নেই বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

রামদিয়া এস. কে. কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিত্যান্দ রায় বলেন, বিষয়টি ইউএনওকে জানানো হয়েছে। এ ছাড়া অভিযুক্ত কানন বালাকে জমি মেপে সীমানা নির্ধারণের পর কাজ করতে বলা হয়েছে। কলেজের জায়গা অবৈধভাবে যারা দখল করেছে, তাদের বিরুদ্ধে শিগগির উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হবে।

অভিযুক্ত কানন বালা বলেন, ক্রয় সূত্রে আমি এ জমির মালিক। এর পরও প্রশাসনের নির্দেশে কাজ বন্ধ রেখেছি।

কাশিয়ানীর ইউএনও রথীন্দ্র নাথ রায় বলেন, অভিযোগ পেয়ে কানন বালাকে কাজ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। তদন্ত করে দখলের সত্যতা মিললে ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং কলেজ কর্তৃপক্ষকে জায়গা ফিরিয়ে দেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন