নানা অনিয়ম, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগে রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদকে চেয়ারম্যান পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপজেলা-২ শাখা এ-সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রজ্ঞাপনটি পাংশা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে পৌঁছায়।

গত বুধবার ইস্যু করা স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপজেলা-২ শাখার উপসচিব মোহাম্মদ সামসুল হক স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদের বিরুদ্ধে উপজেলা পরিষদের অধিগ্রহণ করা জমিতে নির্মিত ১০টি দোকানঘর তার আপন ভাই ও ফুফাতো ভাইদের নামে বরাদ্দসহ অন্যান্য অভিযোগগুলো বিভাগীয় কমিশনারের তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে। তাই চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদকে চেয়ারম্যান পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো।

পাংশার ইউএনও মোহাম্মদ আলী জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে তিনি প্রজ্ঞাপনটি হাতে পেয়েছেন। উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদ

হাসান ওদুদের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ থাকায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে কথা বলতে ফরিদ হাসান ওদুদের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

মন্তব্য করুন