কসবায় জাল ওয়ারিশ সনদ নিয়ে নিজের নামে সম্পত্তি খারিজের সময় তহশিল অফিসে বিষয়টি ধরা পড়েছে। এ ঘটনায় জড়িত উপজেলার খাড়েরা ইউনিয়নের মনকাশাইর গ্রামের বিল্লাল হোসেন নূর দৌড়ে পালিয়ে যান।

বিষয়টি জানতে পেরে খাড়েরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা কবির আহাম্মেদ খান গত বুধবার কসবা থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

জানা যায়, বিল্লাল মনকাশাইর গ্রামের হাজি আব্দুস ছোবাহান ভূঁইয়ার ছেলে। তিনি পরিবারের অন্য ভাই- বোনদের সম্পত্তির ভাগ না দিয়ে নিজ নামে সব সম্পদ আত্মসাতের জন্য জাল ওয়ারিশ সনদপত্র তৈরি করেন। এর পর খাড়েরা ভূমি অফিসে সব সম্পত্তির নামজারির আবেদন করলে সনদপত্রটি জাল বলে প্রতীয়মান হয় ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তার কাছে। ফলে ওই কর্মকর্তা বিষয়টি নিয়ে চ্যালেঞ্জ করেন। এমতাবস্থায় বিল্লাল দৌড়ে পালিয়ে যান।

এ ব্যাপারে খাড়েরা ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা আব্দুল রাজ্জাক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি ধরা পড়ায় বিল্লাল পালিয়ে গেছেন। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হাসিবা খান ও খাড়েরা ইউনিয়ন চেয়ারম্যানকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন