ফতুল্লায় তরুণ ব্যবসায়ী শরীফ মাতবর হত্যা মামলা এক বছরেও আলোর মুখ দেখেনি। হত্যায় অংশ নেওয়া সব আসামিকে গ্রেপ্তারও সম্ভব হয়নি। হত্যায় অংশ নেওয়া ৪১ আসামির মধ্যে পুলিশের তদন্তে উঠে আসে ২৬ জনের নাম। তাদের ১৯ জনকে গ্রেপ্তার সম্ভব হয়, এর মধ্যে ১১ জন জামিন নিয়েছে। গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি সাতজনকে। জামিনপ্রাপ্ত এবং গ্রেপ্তার না হওয়া আসামিরা শরীফের পরিবারকে আপস করতে হুমকি-ধমকি দিচ্ছে। শুধু তাই নয়, নিহতের পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির চেষ্টাও করা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মাদক ব্যবসা ও চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করায় গত বছরের ১ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম দেওভোগ আদর্শ নগরের শরীফ মাতবরকে কুপিয়ে হত্যা করে এলাকার কিশোর গ্যাং শাকিল-লালন গ্রুপ। ফতুল্লা থানার পশ্চিম দেওভোগ এলাকায় ফার্নিচারের ব্যবসা করতেন শরীফ। এর আগে তিনি প্রবাসে ছিলেন।

গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে আশিষ দেওয়ান, লিমন, ইসমাইল ও রাসেল আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। যে সাত আসামিকে এখনও গ্রেপ্তার সম্ভব হয়নি তারা হচ্ছে- দীপু, দেলোয়ার, সিজান, আসাদ, হাসিব, সিয়াম ও ছোট রাজু।

বিষয় : কিশোর গ্যাংয়ের হাতে খুন

মন্তব্য করুন