১১ দিন অতিবাহিত হলেও স্বজনদের খোঁজ মেলেনি সড়ক দুর্ঘটনায় আহত প্রতিবন্ধী বৃদ্ধাটির। ২০ জুলাই থেকে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেডে ভাঙা পায়ের যন্ত্রণা নিয়ে কাতরাচ্ছেন তিনি।

গত ২০ জুলাই রাত সাড়ে ১২টায় কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের কসবা উপজেলার মীরপুর পুলিশ ফাঁড়ির কাছে একটি দ্রুতগামী মোটরসাইকেলের ধাক্কায় ওই বৃদ্ধা পা ভেঙে সড়কে পড়েছিলেন। পরে এক অটোচালক তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসেন।

শুক্রবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায়, মনেক্কা বেগম মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালের বেডে পড়ে কাতরাচ্ছেন। তার পরিচয় জানতে চাইলে হাউমাউ করে কাঁদছেন। প্রশ্ন করলে চুপ থাকেন। তবে তার নাম মনেক্কা বেগম, বাবা আমজাদ খান, ঢাকা মিরপুরের ১২ নম্বর এলাকায় বাসা বলে জানান।

আবাসিক মেডিকেল অফিসার মঞ্জুর হোসেন জানান, মনেক্কা বেগম ঈদের আগের দিন রাতে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের বারান্দায় পড়েছিলেন। কর্তব্যরত চিকিৎসক ও নার্সদের সহায়তায় তাকে ওয়ার্ডে এনে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

মন্তব্য করুন