নির্ধারিত সময়ের এক বছর পর কুমিল্লা-লাকসাম রেললাইনের ডুয়েলগেজ উদ্বোধন করা হবে আজ শনিবার। রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশনে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নবনির্মিত ডুয়েলগেজ ডাবল লাইনে ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করবেন। ডুয়েলগেজ উদ্বোধনের ফলে দুর্ঘটনা কিংবা স্বাভাবিক কারণে রেল চলাচলে ক্রসিংয়ের ঝামেলা থাকবে না। রেল চলাচলেও আসবে গতি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রেলওয়ের মহাপরিচালক ডি. এন. মজুমদার, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান, পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদসহ স্থানীয় প্রশাসন ও রেলওয়ের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন। কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

রেলওয়ের প্রকৌশল বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম ৩২১ কিলোমিটার রেলপথের ১১৮ কিলোমিটার আগে থেকেই ডাবল লাইন। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর তিনটি প্রকল্পের মাধ্যমে আরও ১৩১ কিলোমিটার ডাবল লাইন নির্মাণ করা হয়েছে। বাকি ৭২ কিলোমিটার রেলপথ ডুয়েলগেজ ডাবল লাইনে উন্নীত করার জন্য 'লাকসাম-আখাউড়া ডাবল লাইন প্রকল্পটি' নেয় বাংলাদেশ রেলওয়ে। ২০১৪ সালের ২৩ ডিসেম্বর জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রকল্পটি অনুমোদন হয়। কাজ শুরু হয় ২০১৬ সালে। প্রায় সাড়ে ৬ হাজার কোটি টাকার এ প্রকল্পের কাজ ২০২০ সালের জুনের মধ্যে শেষ হওয়ার কথা ছিল। ভূমি অধিগ্রহণ জটিলতা এবং গত প্রায় দেড় বছর ধরে করোনার জন্য প্রকল্পের মেয়াদ বাড়িয়ে দেয় সরকার। চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে কুমিল্লা অংশের কাজ শেষ হলে লাকসাম পর্যন্ত ২৪ কিলোমিটার লাইনের কাজ দৃশ্যমান হয়।

কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার শফিকুর রহমান ভূঁইয়া জানান, সম্প্রতি কুমিল্লা থেকে লাকসামের ২৪ কিলোমিটার ডাবল লাইনের কাজ শেষ হয়েছে। রেল চলাচলে ক্রসিংয়ের ঝামেলা এড়িয়ে সময় কমিয়ে আনতে ডুয়েলগেজ লাইনটি ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

মন্তব্য করুন