সাম্প্রদায়িক উস্কানিদাতাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। তিনি বলেন, যারা সহিংসতা করে, তারা জঙ্গি। জঙ্গির কোনো ধর্ম থাকতে পারে না। সাম্প্রদায়িক উস্কানিদাতাদের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়াতে হবে।

শনিবার সকালে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও শান্তির পক্ষে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ আহ্বান জানান। মেয়র আইভীর নেতৃত্বে নগরীর চাষাঢ়া থেকে মণ্ডলপাড়া পর্যন্ত প্রায় দেড় কিলোমিটার সড়কের ফুটপাতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে অংশ নেন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ, সাংস্টৃ্কতিক জোটসহ বিভিন্ন পেশাজীবী ও ধর্মীয় সংগঠনের নেতাকর্মী।

আইভী বলেন, বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ কখনও সাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী নয়। ইসলাম অন্যের ধর্মের প্রতি সহনশীল থাকার শিক্ষা দিয়েছে। বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী হয়ে বাংলাদেশ বিনির্মাণ করছেন। কুচক্রী মহল এই বাংলার জনগণকে প্রতিহত করতে হিন্দু-মুসলমানের সম্প্রীতি নষ্ট করে দাঙ্গা বাধানোর চেষ্টা করছে। সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য খুবই সস্তা পদ্ধতি বেছে নিয়েছে দুস্কৃতকারীরা। তাদের শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানান আইভী।

'কোনো ধর্মই হিংসার অনুমতি দেয় না' মন্তব্য করে নাসিক মেয়র বলেন, যারা সহিংসতা করে, তারা জঙ্গি। জঙ্গির কোনো ধর্ম থাকতে পারে না। কারণ, একজন বিবেকবান মানুষ কখনোই অন্য ধর্মের ওপর আঘাত হানতে পারে না। আগুন লাগানো বা মানুষকে কুপিয়ে হত্যা করতে পারে না। কিছু মানুষ সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে সারাদেশে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটাচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদ সদস্য আনিসুর রহমান দিপু, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবদুল কাদির, আদিনাথ বসু, আসাদুজ্জামান, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সুফিয়ান প্রমুখ।

মন্তব্য করুন