ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে দুই স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে দুর্গাপুর ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী এমএ ওহাব খান খোকা এবং রায়েদ ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিনা খাতুন মুনমুন গতকাল মঙ্গলবার কাপাসিয়া থানায় পৃথক লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

লিখিত অভিযোগে দুর্গাপুর ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী এমএ ওহাব খান খোকা জানান, গত সোমবার রাত সাড়ে ৮টার সময় রাওনাট বাজার এলাকায় গেলে ওই এলাকার ফারুক, রনি ও তামিমের নেতৃত্বে ১৫-২০ যুবক তাকে ঘিরে ফেলে এবং নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে চাপ প্রয়োগ করে। এ বিষয়ে তিনি কোনো আপস করবেন না বলে জানালে তারা তাকে টেনেহিঁচড়ে ওই বাজার থেকে বের করে দেয়। আগামী ১১ নভেম্বর নির্বাচনের দিন পর্যন্ত বাড়ি থেকে বের হতে নিষেধ করে তারা। অন্যথায় তাকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে।

অন্যদিকে, রায়েদ ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিনা খাতুন মুনমুন জানান, গত সোমবার রাত সাড়ে ৮টার সময় পোড়াবাজার এলাকায় গেলে স্থানীয় মো. মিলন, মো. দুলাল, ইব্রাহিম, মো. কবির হোসেন, চান মিয়া মোল্লা ও রাহাতের নেতৃত্বে শতাধিক লোক তাকে ঘিরে ফেলে। এ সময় তারা তাকে গালাগাল করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর নির্দেশ দেয়। এ সময় তিনি আমরাইদ বাজার চার রাস্তার মোড় এলাকা যান। এ সময় তাদের কয়েক জনসহ ৫০-৬০ জন নির্বাচন থেকে সরে না দাঁড়ালে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আবুল বাশার জানান, প্রার্থীরা কোথাও গেলে আচরণবিধি লঙ্ঘন হবে না এবং তাদের নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে বলা যাবে না। এ বিষয়ে তিনি কোনো অভিযোগ পাননি বলেও জানান।

কাপাসিয়া থানার ওসি এএফএম নাসিম জানান, এসব বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন