শোভাযাত্রায় পৃথক সাইকেল লেনের দাবি

প্রকাশ: ০৭ এপ্রিল ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

শোভাযাত্রায় পৃথক সাইকেল লেনের দাবি

সাইকেল লেন দিবস উপলক্ষে শুক্রবার রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ে শোভাযাত্রা বের হয়-সমকাল

'ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ন্ত্রণ ও সাইক্লিং উৎসাহিত করুন, জ্বালানি সাশ্রয়, যানজট রোধে সাইকেল লেন হোক বাস্তবায়ন' প্রতিপাদ্য নিয়ে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে সপ্তম সাইকেল লেন দিবস পালিত হয়েছে। এ সময় পৃথক সাইকেল লেনের দাবি জানানো হয়।

দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ সাইকেল লেন বাস্তবায়ন পরিষদের আয়োজনে গতকাল শুক্রবার সকালে রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ে শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি মো. আতিকুল ইসলাম, চিত্রনায়ক আকবর হোসেন পাঠান ফারুক, আয়োজক পরিষদের সভাপতি আমিনুল ইসলাম টুব্বুস, সাবেক ফুটবলার কায়সার হামিদ, উৎসব কমিটির আহ্বায়ক তানজীম এলাহী প্রমুখ। বর্ণাঢ্য এই শোভাযাত্রার সৌজন্য সহযোগিতায় ছিল দুরন্ত সাইকেল।

পরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, আমাদের ঢাকা শহরে এখন যে অসহনীয় যানজট, তা নিরসনে সাইকেল চালানোকে অগ্রাধিকার দেওয়া যেতে পারে। আমরা যদি এ ব্যাপারে ছেলেমেয়েদের উৎসাহিত করি, তবে যানজটও অনেকটা কমিয়ে আনতে পারব। সাইকেলের জন্য আলাদা লেন জরুরি বলে তিনি মন্তব্য করেন।

একটি গবেষণা প্রতিবেদনের তথ্য তুলে ধরে চিত্রনায়ক ফারুক বলেন, যানজটের কারণে ত্রিশ হাজার কোটি টাকার ক্ষতি হচ্ছে, এটা থেকে আমরা মুক্তি পেতে চাই। সাইকেলের আলাদা লেনের দাবি সরকারের কাছে জোরালোভাবে তুলে ধরার পরামর্শ দেন তিনি। বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি আতিকুল ইসলাম বলেন, আমাকে উত্তর থেকে মেয়র পদে প্রার্থী হওয়ার জন্য মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। যদি মেয়র হতে পারি, আমি প্রথমেই আলাদা সাইকেল লেন কিছুটা অংশে হলেও বাস্তবায়ন করব।

সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে আমিনুল ইসলাম বলেন, আর্থিক, সামাজিক, স্বাস্থ্য, পরিবেশ উন্নয়নের লক্ষ্যে সাইক্লিংকে সারা বিশ্বে তরুণদের মাঝে উৎসাহিত করা হয়। কিন্তু দুঃখের বিষয় বাংলাদেশে সাইক্লিস্টদের কোনো সুযোগ-সুবিধা না থাকায় তারা নিরুৎসাহিত হচ্ছে।