ফতুল্লায় বিএনপির ৫৩ নেতাকর্মীর নামে নাশকতার মামলা

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে ৫৩ জনের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে ফতুল্লা মডেল থানার এসআই কাজী এনামুল হক বাদী হয়ে মামলাটি করেন। তবে বিএনপি নেতাদের দাবি- যে তারিখের কথা উল্লেখ করে এ মামলা করা হয়েছে, সেদিন এমন কোনো ঘটনাই ঘটেনি। এটি একটি ভৌতিক মামলা।

মামলার উল্লেখযোগ্য আসামিরা হলেন- সাবেক এমপি গিয়াসউদ্দিন, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান মনির, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদ, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এম এ আকবর, মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক ও নাসিক ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি, কালাম পাটোয়ারি, তুষার আহম্মেদ মিঠু, নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

এর আগে গত ৬ সেপ্টেম্বর সিদ্ধিরগঞ্জের ভূইগড় থেকে জেলা ছাত্রদলের সোহেল মোল্লা, দুলাল ভূঁইয়া ও রাজীব হোসেনকে আটক করে পুলিশ। ওই সময় তাদের কাছ থেকে চারটি ককটেল, ২২টি লোহার রড ও ১৭টি বাঁশের লাঠি উদ্ধার করা হয় বলেও মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়। মামলায় এ তিনজনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

মামলার বিষয়ে সাবেক এমপি মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন বলেন, সাংবাদিকদের কাছেই আমার প্রশ্ন, মামলায় যে তারিখের কথা উল্লেখ করা হয়েছে, সেদিন এমন কোনো ঘটনা ঘটেছে কি-না?

জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদ বলেন, ফতুল্লা থানায় যে মামলা করা হয়েছে, সেরকম কোনো ঘটনা ফতুল্লায় ঘটেনি। গত ৬ সেপ্টেম্বর আমাদের কোনো কর্মসূচিও ছিল না। তবু আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করা হয়েছে, নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হয়েছে। এটিকে ভৌতিক মামলা ছাড়া আর কি বলা যায়।