বনখেকো জসীমের আরও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি

বনখেকো জসীমের আরও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

রোববার গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বনের জমিতে জসীম ইকবালের গড়ে তোলা গ্রাম গুঁড়িয়ে দেয় বন বিভাগ ও প্রশাসন সমকাল

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বনখেকো জসীম ইকবালের সরকারি বনের জমিতে গড়ে তোলা আরও স্থাপনা বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দিয়েছে বন বিভাগ ও প্রশাসন। গতকাল রোববার দ্বিতীয় দিনের মতো অভিযান চালানো হয়।

গত শনিবার থেকে চান্দনা পল্লী বিদ্যুৎ জোড়াপাম্প এলাকায় শুরু করা হয় বন বিভাগের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান। ওই দিন বন বিভাগের জমিতে গড়ে ওঠা শতাধিক অবৈধ স্থাপনা ভেঙে গুঁডিয়ে দেওয়া হয়। বনের জমিতে গড়ে তোলা তার চারতলা বিলাসবহুল বাড়িটির একাংশও গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়। অভিযানে জবর-দখল হওয়া প্রায় ১০ একর জমি উদ্ধার করা হয়েছে। যার আনুমানিক মূল্য একশ' কোটি টাকা হবে বলে বন বিভাগ দাবি করেছে।

বন বিভাগের কর্মকর্তারা জানান, জোড়াপাম্প এলাকায় প্রায় তিনশ' বিঘা জমি জবর-দখল করে ঘরবাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করে জসীম। 'নতুনপাড়া' নামে একটি গ্রামও গড়ে তোলা হয়। অথচ বছর তিন-চার আগেও ওই এলাকা শাল-গজারির গাছে ঘেরা ছিল।

দ্বিতীয় দিনে উচ্ছেদ অভিযানের সময় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, জবর-দখল হয়ে যাওয়া সরকারি বনের সব জমি উদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। অবৈধ দখলদাররা যতই ক্ষমতাধর ব্যক্তি হোক না কেন কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। শুক্রবার সকালে কাপাসিয়ার একটি বন থেকে জসীমের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ।