থাকবে কে

ইতালি না উরুগুয়ে

প্রকাশ: ২৪ জুন ২০১৪      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

গ্রুপিংয়ের পরই 'ডি' গ্রুপকে বলা হচ্ছিল মৃত্যুকূপ। তাই বলে এতটা ভয়ঙ্কর অবস্থা হবে, সেটা সম্ভবত কেউই ভাবতে পারেনি। সবার প্রত্যাশা ছিল, তিন বিশ্বচ্যাম্পিয়নের একটি বাদ যাবে। কিন্তু এক কোস্টারিকা সব হিসাব পাল্টে দিয়েছে। দুই বিশ্বচ্যাম্পিয়নকে হারিয়ে দিয়ে পুরো বিশ্বকে অবাক করে মৃত্যুকূপ থেকে শেষ ষোলোতে নাম লিখিয়েছে সবার আগে। ইংল্যান্ড তো সবার আগেই বিদায় নিয়েছে। আজ মুখোমুখি হবে কোস্টারিকার কাছে হারা দুই দল ইতালি ও উরুগুয়ে। যে হারবে তাকেই বাড়ির পথ ধরতে হবে। ইতালির অবশ্য ড্র হলেও চলবে। গোলপার্থক্যে এগিয়ে আছে তারা। আজ বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় অ্যারেনা দস দুনাসে বিশ্বকাপে টিকে থাকার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে দুই জায়ান্ট।
ইতালি ও উরুগুয়ে উভয় দলই তিন পয়েন্ট করে পেয়েছে। উভয়েই কোস্টারিকার কাছে হেরেছে এবং ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পেয়েছে। তবে বেশি গোল হজম করায় জয় ছাড়া পথ নেই উরুগুয়ের। অবশ্য লুই সুয়ারেজ যে ফর্মে আছেন, তাতে উরুগুয়েকে কিছুটা এগিয়ে রাখতেই হবে। ইনজুরি থেকে ফিরে তিনি একাই হারিয়ে দেন ইংল্যান্ডকে। তাই তো উরুগুয়ে বস অস্কার তাবারেজ বেশ আত্মবিশ্বাসী ইতালি ম্যাচ নিয়ে, 'একটি চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর বিপক্ষে দল বেশ ভালো করেছে। আশা করছি, ইতালির বিপক্ষে আরও ভালো করবে।' যদি আজ ইতালি হেরে যায়, তাহলে টানা দ্বিতীয়বারের মতো গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেবে চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। তবে ইতালির অধিনায়ক জিয়ানলুইজি বাফন ঘুরে দাঁড়ানোর ব্যাপারে ভীষণ আত্মবিশ্বাসী। এই গোলকিপার বলেন, 'ঐতিহাসিকভাবে বিশ্বকাপে দ্বিতীয় ম্যাচটি আমরা ভালো খেলতে পারিনি। তবে তৃতীয় ম্যাচটি আমরা বেশ ভালো খেলি।' অতীত ইতিহাসই ভরসা দেখাচ্ছে ইতালিকে।
ইতালি অবশ্য এরই মধ্যে একটি অজুহাত দেখিয়ে ফেলেছে। দ্বিতীয় ম্যাচে হারের পর তারা বলেছে, ব্রাজিলের প্রচণ্ড গরমের জন্য নাকি কোস্টারিকার বিপক্ষে ভালো খেলতে পারেননি। বাফন অবশ্য উরুগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচের আগের দিন ওই অজুহাত বাতিল করে দিয়েছেন। কন্ডিশন নিয়ে তিনি বলেন, 'আমার মনে হয়, এ কন্ডিশনে লাতিনদের তুলনায় ইউরোপিয়ানরা একটু বেশি ভুগছে। তবে এটা কোনো অজুহাত হতে পারে না। কারণ, আমাদের প্রতিপক্ষও তো একই কন্ডিশনে খেলছে।' আর উরুগুয়েকে বেশ শক্ত প্রতিপক্ষ হিসেবেও মানছেন তিনি, 'ইংল্যান্ডকে হারিয়ে উরুগুয়ে যেন নতুন করে বিশ্বকাপ শুরু করেছে। এখন উরুগুয়ের সবার বিশ্বাস, তারা আমাদেরও হারাবে এবং শেষ ষোলোতে যাবে। তবে উরুগুয়ের বেশ কয়েকজন ফুটবলার সম্পর্কে আমরা জানি। এই যেমন কাভানি ন্যাপোলিতে খেলায় আমরা তার সম্পর্কে অনেক কিছুই জানি। কিন্তু সুয়ারেজের বিষয়ে একটু কম জানি। এখন আমাদের মাথা ঠাণ্ডা রেখে খেলতে হবে। যদি আমরা প্রথম রাউন্ডের বাধা টপকাতে না পারি, তাহলে সেটা হবে বড় ব্যর্থতা।'
ইংল্যান্ডের বিপক্ষে যে ফরমেশনে খেলতে নেমেছিল উরুগুয়ে, সম্ভবত সে ছকেই এ ম্যাচে নামবে। আর ইতালি কৌশলগত পরিবর্তন আনতে পারে। তারা সম্ভবত ৪-১-৪-১ পদ্ধতিতে নামতে পারে। প্রথম দুই ম্যাচে আজ্জুরিরা ৩-৪-২-১ এবং ৩-৫-২ ফরমেশনে খেলেছিল।