ইংল্যান্ডের অধিনায়ক বদল

প্রকাশ: ২৪ জুন ২০১৪      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বিশ্বকাপ শুরুর আগে কোস্টারিকাকে গ্রুপের 'শক্তিশালী' বললে নির্ঘাত ঝাড়ি খেতে হতো। কিন্তু দুই ম্যাচ শেষে তেমনটাই বলতে হচ্ছে। গ্রুপের পয়েন্ট তালিকা জানাচ্ছে, সবার উপরে আছে বিশ্বকাপের ইতিহাসে এর আগে মাত্র একবারই দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠা কোস্টারিকা! তাদের পেছনে পড়ে আছে সাত সাতবার বিশ্বকাপ ঘরে তোলা তিন চ্যাম্পিয়ন দেশ! ইতালি উরুগুয়েকে হারিয়ে এরই মধ্যে শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে মধ্য আমেরিকার দেশটি। সেই দলটির বিপক্ষে ব্রাজিল বিশ্বকাপে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলতে নামছে ইংল্যান্ড। আজ বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় শুরু হবে ম্যাচ। প্রথম দুই ম্যাচ হেরে এরই মধ্যে ইংলিশদের বিশ্বকাপ স্বপ্ন শেষ। সম্মানজনক বিদায় ছাড়া বিশ্বকাপ থেকে অর্জনের আর কিছু নেই। মোটামুটি ভয়ডরহীন এ ম্যাচটাকেই তাই সুযোগ হিসবে নিচ্ছেন রয় হজসন। শেষ ম্যাচে দলে আনছেন একাধিক পরিবর্তন। তরুণ খেলোয়াড়দের দিয়েই সাজাচ্ছেন মূল একাদশ। রস বার্কলে এবং লুক শ'র খেলা এরই মধ্যে নিশ্চিত। দেখা যেতে পারে ফিল জোনস আর ক্রিস স্মালিংকেও। একাদশ বদলের মতো বদল করা হয়েছে অধিনায়কও। জেরার্ডের জায়গায় কোস্টারিকার বিপক্ষে অধিনায়কত্বের আর্মব্যান্ড উঠছে ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের হাতে। ৩৬ বছর বয়সী চেলসি স্ট্রাইকারের এটিই সম্ভবত দেশের হয়ে শেষ ম্যাচ। একজনকে অবশ্য চেয়েও দলে পাচ্ছেন না হজসন। মিডফিল্ডে বড় ভরসা অ্যালেক্স অক্সলাডে চেম্বারলিনের পুরনো হাঁটু ইনজুরি বেড়েছে। রোববার এ কারণে অনুশীলন থেকেই উঠে যেতে হয়েছে তাকে। ইংলিশদের জন্য দুশ্চিন্তা হতে পারে আরও একটি। যেখানে কোস্টারিকার মুখোমুখি হচ্ছে তারা, সেই বেলো হরাজন্তেতেই ১৯৫০ বিশ্বকাপে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হেরে গিয়েছিল ইংল্যান্ড। যেটিকে এখনও বিশ্বকাপের সেরা আপসেটগুলোর একটি ধরা হয়ে থাকে। অনুপ্রেরণা নেওয়ার সুযোগও অবশ্য আছে। ১৯৮৮ সালের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের পর বড় কোনো টুর্নামেন্টে ইংল্যান্ড গ্রুপ পর্বের তিন ম্যাচেই হারেনি। বিশ্বকাপ থেকে কখনও একদম শূন্য হাতে ফিরতে হয়নি। তবে এবার বিশ্বকাপে হাত ভরতে থাকা কোস্টারিকার লক্ষ্য নিজেদের ভাণ্ডার আরও সমৃদ্ধ করা। ড্র করতে পারলেই 'ডি' গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হবে জর্জ লুইস পিন্টোর দল।