জোড়া বোমায় কাঁপল দামেস্ক নিহত ২০

প্রকাশ: ১২ জুন ২০১৬      

সমকাল ডেস্ক

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের কাছে শিয়া অনুসারীদের একটি মাজারের বাইরে আত্মঘাতী ও গাড়িবোমা হামলায় কমপক্ষে ২০ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে অন্তত ৩০ জন। গতকাল শনিবার এ হামলার ঘটনা ঘটে।
সরকারি বার্তা সংস্থা সানার খবরে বলা হয়, এক আত্মঘাতী ও এক গাড়িবোমা হামলাকারী সায়িদা জয়নাব মাজারের প্রবেশপথে হামলা চালায়। সারাবিশ্বের শিয়া অনুসারীরা এই মাজারকে পরম শ্রদ্ধার চোখে দেখে থাকে। ব্রিটিশভিত্তিক মানবাধিকারবিষয়ক সিরীয় পর্যবেক্ষণ সংস্থা নিহতের সংখ্যা কমপক্ষে ২০ ও আহত ৩০ জন বলে জানিয়েছে। তবে সরকার পক্ষ বলেছে ১২ জন নিহত হয়েছে।
প্রথম বিস্ফোরণটি ছিল আত্মঘাতী। হামলাকারীর দেহে বিস্ফোরকভর্তি বেল্ট বাঁধা ছিল। এ এলাকার প্রবেশপথে এই বিস্ফোরণটি ঘটে। অন্য বিস্ফোরণটি মাজারটির কাছেই আল-তিন সড়কে ঘটে। এই দ্বিতীয় বিস্ফোরণটি গাড়িবোমা।
দামেস্কের কেন্দ্রস্থল থেকে মাত্র ১০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত মাজারটি সরকারপন্থি বাহিনীর সদস্যদের কঠোর নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে থাকলেও আইএসসহ বিভিন্ন জঙ্গিগোষ্ঠী এখানে হামলার প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছে।
এর আগে দুই দফা বোমা হামলায় সায়িদা জয়নাব মাজারে ১৫০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়। গত ২৫ এপ্রিল হামলায় কমপক্ষে সাতজন নিহত ও আরও অনেকে আহত হয়। এর আগে গত ফেব্রুয়ারি মাসে এ মাজারের কাছে আইএসের সিরিজ বোমা হামলায় ১৩৪ জন নিহত হয়। এদের মধ্যে অধিকাংশ বেসামরিক নাগরিক ছিল।
গত জানুয়ারি মাসে অপর এক হামলায় ৭০ জন নিহত হয়। পরে আইএস ওই হামলার দায় স্বীকার করে। সায়িদা জয়নাব মাজারে নবী মুহাম্মদ (সা.)-এর এক নাতনির কবর রয়েছে। সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ সত্ত্বেও এই শিয়া মাজারে হাজার হাজার অনুসারীর সমাবেশ ঘটে। লেবাননের শিয়া আন্দোলনকারী গোষ্ঠী হেজবুল্লাহ আগেই জানিয়েছিল, সিরিয়ার বর্তমান ক্ষনমতাসীন প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের পক্ষে লড়াই করার অন্যতম কারণ এই মাজারটির সুরক্ষা নিশ্চিত করা।