যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবাদী সহিংসতা ছড়িয়ে পড়তে পারে

প্রকাশ: ২৫ আগস্ট ২০১৭

সমকাল ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রকে অবশ্যই দ্বিধাহীন ও নিঃশর্তভাবে বর্ণবাদী বক্তব্য ও অপরাধের স্পষ্ট সমালোচনা করতে হবে। দেশটির সরকার ও বিভিন্ন দলের নেতাদের প্রতি এ আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। যুক্তরাষ্ট্র তা করতে ব্যর্থ হলে সহিংস ঘটনা আরও বাড়বে বলেও সতর্ক করেছে আন্তর্জাতিক সংস্থাটি। পূর্বসতর্কতা এবং জরুরি পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে স্থানীয় সময় অনুযায়ী গত বুধবার জাতিসংঘের বর্ণবৈষম্যবিরোধী কমিটি (সিইআরডি) এই বিবৃতি দিয়েছে, যা বলতে গেলে নজিরবিহীন। সিএনএন।
এ মাসের শুরুর দিকে যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের শার্লটসভিলেতে বর্ণবাদবিরোধীদের মিছিলে শ্বেতাঙ্গ জাতীয়বাদীরা হামলা চালায়। এ ঘটনায় 'দুই পক্ষকে' দায়ী করায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওই মিছিলে জেমস অ্যালেক্স ফিল্ডস নামের এক শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদী ব্যক্তির গাড়ি হামলায় হেদার হেয়ের নামের ৩২ বছর বয়সী এক নারী নিহত হন।
জাতিসংঘের বর্ণবৈষম্যবিরোধী কমিটি সিইআরডি ওই বিবৃতিতে বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রের বর্ণবাদী ঘটনা মোকাবেলায় দেশটির সর্বোচ্চ রাজনৈতিক পর্যায়ের ব্যর্থতায় তারা উদ্বিগ্ন। এ ব্যর্থতার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবাদী আচরণ ও ঘটনা বেড়ে যেতে পারে। সিইআরডি প্রধান আনাসতাসিয়া ক্রিকলি বলেন, 'শ্বেতাঙ্গদের আধিপত্য প্রতিষ্ঠায় শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদী, নব্য নাৎসি এবং কু ক্লাক্স ক্লানের সদস্যরা যে বর্ণবাদী স্লোগান দেয় ও বর্ণবাদী বিক্ষোভ প্রদর্শন করে তা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। এসব আচরণ বর্ণবৈষম্য ও বিদ্বেষ বাড়ায়।' জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞরা সুপারিশ করেছেন, সহিংসতায় উস্কানিদাতা হিসেবে সন্দেহভাজনদের বিচারের মুখোমুখি করতে হবে এবং তারা দোষীসাব্যস্ত হলে নিষেধাজ্ঞাতুল্য সাজা ঘোষণা করতে হবে।