পড়ার বিষয়

প্রফেশনাল কোর্স

প্রকাশ: ১১ জানুয়ারি ২০১৪      

জাবেদ ইকবাল

বিশ্বে অর্থর্নৈতিক প্রতিযোগিতামূলক চাকরির বাজারে আজকাল সাধারণ শিক্ষায় উচ্চতর ডিগ্রি নিয়েও চাকরি পাচ্ছে না দেশের অসংখ্য শিক্ষিত তরুণ-তরুণী। একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি নিতে হয় বাস্তবভিত্তিক বিভিন্ন প্রশিক্ষণ। ফলে বেকারত্ব ঘোচানো অনেক সহজ হয়ে ওঠে। যাকে সহজ ভাষায় বলা হয় 'প্রফেশনাল ট্রেনিং'। ক্যারিয়ার গঠনে এমন একটি ফলপ্রসূ প্রশিক্ষণ কোর্স গার্মেন্টস বায়িং অ্যান্ড মার্চেন্ডাইজিং। সেলাইয়ের কাটিং ও মেকিং ইত্যাদির মান অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক ভালো থাকায় সারাবিশ্বে আমাদের দেশের খ্যাতি রয়েছে। ফলে বেড়ে চলেছে গার্মেন্ট, বায়িং হাউস, ফ্যাশন হাউসসহ পোশাকশিল্প সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা। পাশাপাশি গার্মেন্ট, বায়িং এবং মার্চেন্ডাইজিং সম্পর্কিত প্রশিক্ষিত লোকের চাহিদাও বাড়ছে ব্যাপক।
ক্যারিয়ার :শুধু দেশে নয়, বর্তমান বিশ্ববাজারে পোশাকশিল্পের বিপুল চাহিদার কারণে অন্য পেশার চেয়ে এ পেশায় চাকরি পাওয়াটা বেশ সহজও বটে। একেকটি পোশাকশিল্প এবং বায়িং হাউসে প্রচুর পরিমাণে দক্ষ লোক নিয়োগ করা হয়।
বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এ পেশাদারদের উচ্চ বেতনসম্পন্ন কর্মসংস্থান সুবিধা রয়েছে। এসব প্রেক্ষাপটে এ পেশার ব্যাপক দক্ষ জনবল চাহিদার কারণে আমাদের দেশেই গড়ে উঠেছে বেশ কিছু শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান। গার্মেন্ট শিল্পে বায়িং অ্যান্ড মার্চেন্ডাইজিং বিষয়ে প্রশিক্ষণ নিয়ে উচ্চ বেতনে সম্মানজনক চাকরি করার সুযোগ আমাদের দেশে অনেক আগে থেকে রয়েছে ; কিন্তু এই রিলেটেড ডিগ্রিধারী আমাদের দেশে না থাকায় দেশের অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রার বেশিরভাগ অংশই বিদেশে চলে যাচ্ছে। আজকাল পত্রিকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিগুলো দেখলেই পরখ করা যায়, প্রায় প্রতিটি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতেই অভিজ্ঞতাসম্পন্ন জনশক্তির চাহিদা যথেষ্ট।
যেহেতু পেশাকশিল্পের এ পেশাটি সম্পূর্ণ টেকনিক্যাল ওয়ার্ক বা বাস্তবভিত্তিক কাজ; তাই এ সেক্টরে প্রশিক্ষণ ব্যতীত চাকরি পাওয়াটা বেশ দুষ্কর। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব প্রশিক্ষণ নিয়ে চাকরি পাওয়ার ভিত্তিটা শক্ত করাটাই হবে বুদ্ধিমানের কাজ।
গার্মেন্ট, বায়িং হাউস, মার্চেন্ডাইজিং পেশা সংশ্লিষ্ট সব কিছুই শেখানো হয়েছে এর বিভিন্ন কোর্সে। কোর্সের উল্লেখযোগ্য বিষয়গুলো হচ্ছে_ এক্সপোর্ট, ইমপোর্ট, বায়িং পলিসি, ইন্ডেন্টিং, ব্যাংক, কাস্টমস, ডিইডিও, ইপিবি, বিজিএমআই, শিপিং, এলসি, ডকুমেন্টেশন, করেস্পন্ডেন্স, জিএসপি, কোট, টোটাল গার্মেন্ট প্রোডাকশন (ওভেন, নিট, সোয়েটার), কোয়ালিটি কন্ট্রোলিং, ফেব্রিক্স এক্সেসরিস, টেক্সটাইল, ল্যাব টেস্ট, কস্টিং মার্চেন্ডাইজিং, প্রোডাকশন প্ল্যানিং, মার্কেটিং এবং ই-মেইল, ইন্টারনেটসহ পোশাকশিল্পের আনুষঙ্গিক প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।
কোথায় কী ধরনের চাকরি পাবেন :গার্মেন্ট, বায়িং এবং মার্চেন্ডাইজিং প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরা উপযুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোতে নিম্নলিখিত বিভিন্ন পদবিতে চাকরি পাবেন। ক্ষেত্রগুলো হলো_ জেনারেল ম্যানেজার, মার্চেন্ডাইজিং, প্রোডাকশন ম্যানেজার, ফ্লোর ইনচার্জ, কোয়ালিটি কন্ট্রোলার, কোয়ালিটি কো-অর্ডিনেটর, কোয়ালিটি ইন্সপেক্টর, টেকনিক্যাল ডিরেক্টর, কমার্শিয়াল ম্যানেজার, অ্যাসিসট্যান্ট প্রোডাকশন ম্যানেজার, কোয়ালিটি কন্ট্রোল ম্যানেজার, সুপারভাইজার, প্রোডাকশন কো-অর্ডিনেটর ইত্যাদি।
কোথায় নেবেন প্রশিক্ষণ :জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আমাদের দেশে পোশাকশিল্পে ক্যারিয়ার গড়তে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ফ্যাশন টেকনোলজি ফ্যাশন এবং মার্চেন্ডাইজিংয়ে উচ্চতর ডিগ্রি প্রদানের জন্য অনার্স, এমবিএসহ বিভিন্ন মেয়াদি সার্টিফিকেট ্ও ডিপ্লোমা কোর্স চালু করেছে। এর কোর্সগুলোতে বিশেষ সুবিধা রয়েছে। দরিদ্র, মেধাবী, মুক্তিযোদ্ধা, খেলোয়াড়, প্রতিবন্ধী কোটায় স্কলারশিপের সুযোগ রয়েছে।
বিস্তারিত :১৪৬, ওয়্যারলেস গেট, মহাখালী, ঢাকা। ফোন :০১৭১৩১১৬৩১৩, ০১৬৭৮৬৬৬৬২৩।