মো. সুজাউদ দৌলা

সহকারী অধ্যাপক (বাংলা)

রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ

ঢাকা

আজ তোমাদের বাংলা থেকে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন নিয়ে আলোচনা করা হলো। প্রথমে নিজেরা চেষ্টা করবে।

এক কথায় উত্তর

১। উপন্যাস কী?

উত্তর : সুনির্দিষ্ট আয়তনের গদ্য কাহিনি।

২। 'In Search of Lost Time' উপন্যাসটি কার লেখা?

উত্তর :মার্সেল প্রুস্ত্‌।

৩। পৃথিবীর সবচেয়ে বড় উপন্যাসের শব্দসংখ্যা কত?

উত্তর :১২ লাখের মতো।

৪। লেভ তলস্তয়ের 'ওয়ার অ্যান্ড পিস'-এর শব্দসংখ্যা কত?

উত্তর:পাঁচ লাখ সাতাশি হাজারের মতো।

৫। ইতালির বিখ্যাত নন্দনতাত্ত্বিক ঔপন্যাসিকের নাম কী?

উত্তর :উমবার্তো একো।

৬। কে সাত শব্দের এক বাক্যে রচিত একটি লেখাকে পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম উপন্যাস বলে দাবি করেছেন?

উত্তর :উমবার্তো একো।

৭। উপন্যাস শব্দটির সংস্কৃত ব্যুৎপত্তি কীরূপ?

উত্তর :উপ+নি+অস+অ = উপন্যাস

৮। উপন্যাস কোন কালের সৃষ্টি?

উত্তর :আধুনিক কালের।

৯। জীবনের সমগ্রতা সাহিত্যের কোন শাখায় প্রতিফলিত হয়?

উত্তর :উপন্যাসে।

১০। সাধারণভাবে উপন্যাস কয়টি উপাদানের ভিত্তিতে গড়ে উঠেছে?

উত্তর :ছয়টি।

১১। উপন্যাসের প্রধান উপাদান কী?

উত্তর :কাহিনি বা গল্প।

১২। কোন উপন্যাসে গল্পের তেমন প্রাধান্য থাকে না?

উত্তর :নিরীক্ষাধর্মী উপন্যাসে।

১৩। উপন্যাসে উপস্থাপিত কাহিনিকে কী বলা হয়?

উত্তর :আখ্যানভাগ (চষড়ঃ)।

১৪। উপন্যাসের দ্বিতীয় উপাদান কী?

উত্তর :চরিত্র।

১৫। উপন্যাসের তৃতীয় উপাদান কী?

উত্তর :দৃশ্য/পরিবেশ।

১৬। উপন্যাসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান কী?

উত্তর :ভাষা।

১৭। উপন্যাসের লেখকের বলা কথাটিকে কী বলা হয়?

উত্তর :জীবনদর্শন/জীবন ভাবনা।

১৮। রবীন্দ্রনাথের পরে বাঙালির গৃহকাতরতা ও আবহমান পারিবারিক আবেগের ওপর ভর করে কে উপন্যাস লিখেছেন?

উত্তর :শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়।

১৯। শ্রেণিকরণ করলে বাংলাদেশের উপন্যাসকে কয়টি ভাগে ভাগ করা যায়?

উত্তর :৬টি।

[বাকি অংশ প্রকাশিত হবে আগামীকাল]

মন্তব্য করুন