এইচএসসির পর যুগোপযোগী, ক্যারিয়ারনির্ভর এভিয়েশন সেক্টরের দুটি আন্তর্জাতিক মানের বিষয়ে অনার্স কোর্স করার সুযোগ আছে। বিষয় দুটি হলো- বিবিএ ইন এভিয়েশন ম্যানেজমেন্ট ও বিএসসি ইন এরোনটিক্যাল অ্যান্ড এভিয়েশন সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং। এই বিষয় দুটিতে পড়ার সুযোগ করে দিয়েছে কলেজ অব এভিয়েশন টেকনোলজি।

ভর্তির যোগ্যতা :বিএসসি ইন এরোনটিক্যাল অ্যান্ড এভিয়েশন সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়তে ২০২০ সালে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এইচএসসি বা 'এ' লেভেল পরীক্ষায় জিপিএ ৪.০০ পেয়ে পাস করতে হবে। আগ্রহী প্রার্থীর এইচএসসি বা 'এ' লেভেলে পদার্থবিজ্ঞান অথবা উচ্চতর গণিতের মধ্যে যে কোনো একটি বিষয়ে নূ্যনতম ৪.০০ থাকতে হবে। আর বিবিএ ইন এভিয়েশন ম্যানেজমেন্টে ভর্তি হতে ২০২০ সালে এইচএসসি বা 'এ' লেভেল পরীক্ষায় বিজনেস স্টাডিজ, বাণিজ্য বা ব্যবসা প্রশাসন বিভাগ থেকে পাস করা শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে নূ্যনতম ৩.৫০ জিপিএ থাকতে হবে। একই সঙ্গে এইচএসসিতে অ্যাকাউন্টিং বা বিজনেস অর্গানিজশন অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট, অর্থনীতি, ফিন্যান্স, ব্যাংকিং অ্যান্ড ইন্স্যুরেন্স, মার্কেটিং বা পরিসংখ্যানের মধ্যে যে কোনো একটি বিষয়ে নূ্যনতম ৩.০০ থাকতে হবে। বিজ্ঞান ও মানবিক বিভাগ থেকে পাস করা শিক্ষার্থীরাও বিবিএ ইন এভিয়েশন ম্যানেজমেন্ট অনার্স কোর্সে পড়তে পারবেন।

শিক্ষার্থীদেড় সুবিধা :

- বিমানে হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ;

- জার্মানি, সুইজারল্যান্ড, সুইডেন, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, স্পেন, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়াতে ইন্টার্নশিপের সুযোগ;

- অভিজ্ঞতাসম্পন্ন দক্ষ শিক্ষক;

- ইঞ্জিন ল্যাব, ককপিট ল্যাব;

- কিংসস্টন ইউনিভার্সিটি লন্ডন, কভেন্ট্রি ইউনিভার্সিটি, ম্যানচেস্টার ইউনিভার্সিটির পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, জার্মানিসহ বিশ্বের নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্রেডিট ট্রান্সফার

বিবিএ ইন এভিয়েশন ম্যানেজমেন্টে পড়াশোনা সম্পন্ন করে বিমানবন্দর অ্যাডমিনিস্ট্রেশন, অপারেশন, এয়ারলাইন্স মার্কেটিং, অ্যাকাউন্টিং, ফাইন্যান্স, এয়ার হোস্টেস, বিমানবন্দরে যাত্রীসেবা, ই-কমার্স, বিমানবন্দরে কাস্টমস, ই-টিকিটিংসহ জিডিএস প্রোগ্রামে বিসিএস, সরকারি ও বেসরকারি সেক্টরে কাজ করার সুযোগ আছে। তাছাড়া মধ্যপ্রাচ্যের এয়ারলাইন্স এমিরেটস, কাতার, গালফ, কুয়েত, ওমান, সাউদিয়াসহ অন্য যেসব এয়ারলাইন্স বাংলাদেশে ফ্লাইট পরিচালনা করে, সেগুলোতে কাজ করার সুযোগ রয়েছে।

অন্যদিকে, বিএসসি এরোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে লেখাপড়া শেষ করে এরোস্পেস ইঞ্জিনিয়ারিং, এয়ারক্রাফট ইঞ্জিনিয়ারিং, এয়ারলাইন্স ইঞ্জিনিয়ারিং, এয়ারপোর্ট ডিজাইন অ্যান্ড প্ল্যানিং, স্যাটেলাইট, স্পেস ইঞ্জিনিয়ারিং, রোকেট্রি, রাডার সিস্টেমস, রিমোট কন্ট্রোল সেন্সিং সিস্টেমস, এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল সিস্টেমস, এয়ারক্রাফট মেইনটেন্যান্স ম্যানেজমেন্ট, এয়ারক্রাফট ডিজাইন, কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, রাডার ইঞ্জিনিয়ারিং, রোবটিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং, মেকাট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিংসহ স্যাটেলাইট অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের বিসিএস, সরকারি ও বেসরকারি সেক্টরে কাজ করার সুযোগ রয়েছে।

যোগাযোগ : কলেজ অব এভিয়েশন টেকনোলজি
সেক্টর-১১, রোড-২, প্লট-১৪, উত্তরা। ফোন :০১৯২৬৯৬৩৬৫৩।

মন্তব্য করুন