কৃতী সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় সরকারি করার দাবি

প্রকাশ: ০৯ এপ্রিল ২০১৭

পটিয়া প্রতিনিধি

পটিয়ার সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরী বলেছেন, 'পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ১৮৪৫ সালে প্রতিষ্ঠা হওয়ার পর থেকে ধারাবাহিকভাবে সাফল্য ধরে রেখেছে। দেড়শ বছরেও এ বিদ্যালয় সরকারিকরণ না হওয়ার বিষয়টি দুঃখজনক।'
সোমবার প্রাচীনতম বিদ্যাপীঠ পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক পুরস্কার বিতরণ এবং জেএসসি পরীক্ষায় এ প্লাস প্রাপ্তদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
এ সময় পটিয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এ কে এম ফজলুল হক এবং পৌর মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশিদ দেশের প্রাচীনতম বিদ্যাপীট পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়কে সরকারিকরণের দাবি জানান।
বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও পৌর মেয়র অধ্যাপক হারুনুুর রশিদের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, পটিয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এ কে এম ফজলুল হক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ্ আল মামুন, প্রবীণ রাজনীতিবিদ আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার সামশুদ্দিন আহমেদ। বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক চন্দন কান্তি নাথের পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন, পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর আলম, তপন কুমার সেন, সামশুল আলম বাবু, নুর আলম সিদ্দিকী, খোরশেদ গনি, ইঞ্জিনিয়ার রূপক সেন, ইব্রাহিম, ইয়াছমিন আকতার চৌধুরী, বুলবুল আকতার, ডা. জয় দত্ত বড়ূয়া সুমন, সাংবাদিক আহমদ উল্লাহ, মনোয়ারা বেগম, ফারজানা শারমীন প্রমুখ।