শিক্ষাঙ্গন

ডিজিটাল মাস্টারপল্গ্যান প্রণয়ন করছে চবি

প্রকাশ: ০৮ জুলাই ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) বর্তমান উপাচার্য বরেণ্য সমাজবিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীর একান্ত আগ্রহ ও নিজস্ত উদ্ভাবনী চিন্তাচেতনার ফসল হিসেবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিজিটাল মাস্টারপল্গ্যান (দ্বিতীয়) প্রণয়নের বিষয়ে পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান শেলটেক কনসালটেন্স প্রাইভেট লি. ও শেলটেক প্রাইভেট লিমিটেড যৌথ প্রতিষ্ঠান কর্তৃক প্রস্তাবিত প্রাথমিক ড্রাফট মাস্টার পল্গ্যনের ওপর এক মতবিনিময় ও পর্যালোচনা সভা এবং পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপন ৫ জুলাই উপাচার্য দপ্তরের সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।

উপাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষদ সমূহের ডিন, রেজিস্ট্রার, প্রধান প্রকৌশলী ও প্রকৌশলী, প্রশাসক (এস্টেট), হিসাব নিয়ামক, পিএন্ডডি'র পরিচালক, এবং উক্ত প্রতিষ্ঠানসমূহের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

উপাচার্য তাঁর ভাষণে উপস্থিত সকলকে স্বাগত ও আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান। তিনি বলেন, 'চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বয়স ৫০ বছর অতিক্রান্ত হলেও এ বিশ্ববিদ্যালয়ে অতীতে যুগোপযোগী, বিজ্ঞানসম্মত ও টেকসই কোন পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয় নাই। এরই ফলশ্রুতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে নানাবিধ সমস্যায় জর্জরিত। এ অবস্থা থেকে উত্তরণ এবং ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য শিক্ষা-গবেষণার বিজ্ঞানসম্মত উচুঁমার্গের একটি যুগোপযোগী মনোরম পরিবেশ সৃষ্টি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের ওপর বর্তায়।' তিনি আরো বলেন, বিবেকপ্রসূত ও নিজস্ব চিন্তা-চেতনার আলোকে বর্তমান প্রশাসন আগামী প্রজন্মের জন্য একটি বিশ্বনন্দিত উচ্চ শিক্ষা-গবেষণা প্রতিষ্ঠান উপহার দিতে আগ্রহী। এ লক্ষ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য প্রাথমিকভাবে উৎধভঃ চষধহহরহম চৎড়ঢ়ড়ংধষং ভড়ৎ টহরাবৎংরঃু ড়ভ ঈযরঃঃধমড়হম প্রণয়ন করা হয়েছে। এ প্রস্তাবনায় আগামী ৫০ বছরের জন্য ঘবধৎ-গরফ-খড়হম ঞবৎস পরিকল্পনা রয়েছে। উপাচার্য আরও বলেন, এ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে প্রাথমিকভাবে এটিকে ৪টি ভাগে ভাগ করে প্রকল্প বাস্তবায়নের চিন্তা করা হচ্ছে।