৪৩তম সাধারণ সভা ১৩০ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছে যমুনা অয়েল

প্রকাশ: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

২০১৭-১৮ অর্থবছরে শেয়ারহোল্ডারদের ১৩০ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছে যমুনা অয়েল কোম্পানি লিমিটেড। গত শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর কাজীর দেউড়ি এলাকার চট্টগ্রাম ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে কোম্পানির ৪৩তম সাধারণ সভায় এই লভ্যাংশ দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) চেয়ারম্যান ও কোম্পানি পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান মো. সামছুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সাধারণ সভায় উপস্থিত ছিলেন কোম্পানির পর্যদ সদস্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (অব.) মো. আবদুর রাজ্জাক, স্বাধীন পরিচালক শংকর প্রসাদ দেব, বিপিসির পরিচালক (বিপণন) মো. সরওয়ার আলম, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের যুগ্ম প্রধান মো. আবু ইউসুফ মিয়া, শেয়ারহোল্ডার পরিচালক মোজাম্মেল হক ভূঁইয়া, কোম্পানির ব্যবস্থ্থাপরা পরিচালক মো. গিয়াস উদ্দিন আনচারি। সভা সঞ্চালনা করেন কোম্পানি সচিব মো. নাজমুল হক।

সভায় বলা হয়, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে নিট মুনাফা করেছে ২৮১ দশমিক ০৭ কোটি টাকা। শেয়ারহোল্ডারদের ১০ টাকা মূল্যের প্রতিটি শেয়ারের বিরপীতে ১৩ টাকা করে লভ্যাংশ প্রদান করা হয়। অর্থাৎ প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে ১৩০ শতাংশ করে লভ্যাংশ প্রদান করা হলো।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন কোম্পানির ৬০ দশমিক ০৮ শতাংশ শেয়ারের মালিক বিপিসির প্রতিনিধি যথাক্রমে- বিপিসির পরিচালক (অপা. ও পরি.) সৈয়দ মেহেদী হাসান, পরিচালক (অর্থ) আলতাফ হোসেন, সচিব কাজী মোহাম্মদ হাসান, ঊর্ধ্বতম মহাব্যবস্থাপক মো. আবু হানিফ, মহাব্যবস্থাপক (নিরীক্ষা) মো. ইউসুফ হোসেন ভূঁইয়া, মহাব্যবস্থাপক (হিসাব) এটিএম সেলিম, মহাব্যবস্থ্থাপক (অর্থ) মনি লাল দাশ, উপমহাব্যবস্থাপক (আইএমএস) মো. আবুল কালাম আজাদ, উপমহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মো. ফেরদৌসী মাসুম হিমেল প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি