কেপিএম আবাসিক এলাকা

নলকূপের পানি খেয়ে রোগে ভুগছে মানুষ

প্রকাশ: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

নজরুল ইসলাম লাভলু, কাপ্তাই

কাপ্তাইয়ের চন্দ্রঘোনায় একটি নলকূপের পানি পানের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। ওই নলকূপের পানি পান করায় ইতিমধ্যে এলাকাবাসীর নানা সমস্যা দেখা দিয়েছে। নলকূপটি ইউনিয়নের কেপিএম আবাসিক এলাকার ৫ নম্বর লাইনে অবস্থিত।

স্থানীয়রা জানান, বিশুদ্ধ পানির অভাব দূর করতে প্রায় ১৫-২০ বছর পূর্বে চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে নলকূপ বসানো হয়। সে সময় কেপিএম আবাসিক এলাকায় সিংহভাগ মানুষের খাবার পানির চাহিদা এ নলকূপের মাধ্যমে পূরণ করা হতো। দূর-দূরান্ত থেকে লোকজন এসে ওই নলকূপ থেকে খাবার পানি সংগ্রহ করতেন। কিন্তু কয়েক মাস ধরে ওই নলকূপের পানিতে প্রচুর পরিমাণে আয়রন উঠে আসছে। এই পানি পান করায় টাইফয়েড রোগের প্রকোপ দেখা দিয়েছে স্থানীয়দের মধ্যে। কিন্তু অন্য কোন উপায় না থাকায় খাবার পানির চাহিদা মেটানোর জন্য মানুষ বাধ্য হয়ে ওই নলকূপের পানি সংগ্রহ করছে। এতে নানা ধরনের পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী বেবী বলেন, ওই নলকূপের পানিতে সমস্যার বিষয়টি জেনেছি। এ ব্যাপারে সংশ্নিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। বরাদ্দ পাওয়া গেলে স্থান পরিবর্তন করে ওই এলাকায় নতুন করে আরেকটি নলকূপ বসানো হবে। ততদিন এলাকাবাসীকে কষ্ট করে ব্রিক ফিল্ড এলাকায় বসানো নলকূপ থেকে খাবার পানি সংগ্রহ করতে হবে।