লক্ষ্মীপুরের রায়পুর পৌরসভা নির্বাচন সামনে রেখে প্রচারে নেমেছেন আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরা। ১৪ নভেম্বর এক মতবিনিময় সভায় প্রার্থিতা ঘোষণা করেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ছাত্রলীগের সাবেক সহসম্পাদক ও বর্তমান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য গিয়াস উদ্দিন রুবেল ভাট। এ সময় তিনি রায়পুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন পেলে আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করার ঘোষণা দেন।

গিয়াস উদ্দিন রুবেল ভাট বলেন, রায়পুর পৌরসভা একটি অবহেলিত পৌরসভা। যেভাবে উন্নয়ন হওয়ার কথা ছিল, বিগত বছরগুলোতে সেভাবে এ পৌরসভায় উন্নয়ন হয়নি। দল থেকে যদি তাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়, তাহলে তিনি ভোটে নির্বাচিত হতে যা যা করা দরকার তাই করবেন। যাবেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। আর নির্বাচিত হলে নাগরিকদের সুবিধা প্রদানে গড়ে তুলবেন পরিকল্পিত ডিজিটাল রায়পুর পৌরসভা।

মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন রায়পুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ মামুনুর রশীদ, পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক জামশেদ কবির বাক্কী বিল্লাহ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী নাজমুল কাদের গুলজার, সোনাপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইউছুপ জালাল কিছমত, চর মোহনা ইউপি চেয়ারম্যান শফিক পাঠান, জেলা পরিষদের সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম সুমন ও আওয়ামী লীগ নেতা আলমগীর হোসেন।

এতে অন্য বক্তারা বলেন, আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে যাকে মনোনয়ন দেওয়া হবে, দলীয় নেতাকর্মীরা তার পক্ষে কাজ করবেন। কেউ যেন বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নির্বোচনে অংশ না নেন সে অনুরোধ জানান বক্তারা।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু বলেন, জেলার চারটি পৌরসভায় আওয়ামী লীগের নিজস্ব ভোট ব্যাংক রয়েছে। এ জন্য নৌকার বিজয় নিশ্চিত ভেবে অনেকেই প্রার্থিতার কথা জানান দিচ্ছেন। তবে যিনি দলীয় মনোনয়ন পাবেন, দলের সব নেতাকর্মী তার পক্ষে কাজ করবেন। দলের হয়ে একাধিক প্রার্থী থাকার সুযোগ নেই। এ জন্য তৃণমূলে গ্রহণযোগ্যতা আছে, এমন প্রার্থী বাছাই করা হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

মন্তব্য করুন