নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার ২ নম্বর নদনা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন তফসিল ঘোষণা চলতি সপ্তাহে হওয়ার কথা রয়েছে। নির্বাচনকে সামনে রেখে জনসাধারণের মাঝে সোনাইমুড়ী উপজেলায় সরকারের উন্নয়নকাজ ও সাফল্যের বার্তা ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়ে নদনা ইউনিয়নে কৌশলে আগাম প্রচারণা চালাচ্ছেন সাবেক ছাত্র নেতা ইকবাল হোসেন লিটন।\হইউনিয়নে বিভিন্ন উন্নয়ন ও ডিজিটাল সেবার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত গণসংযোগ করছেন ইকবাল হোসেন লিটন। তিনি আসন্ন নদনা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী। সোনাইমুড়ীর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিন ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইকবাল হোসেন লিটন বর্তমানে সোনাইমুড়ী উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ আহ্বায়ক কমিটির নেতা। আগামী জানুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিতব্য নদনা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তিনি নৌকার হাল ধরতে চান। প্রতিদিনই তিনি ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে নৌকার পক্ষে প্রচারণা চালানোর পাশাপাশি সরকারের সাফল্যের বাণী ইউনিয়নের মানুষের কাছে পৌঁছে দিচ্ছেন। ইকবাল হোসেন লিটনের উপস্থিতি ও পদচারণায় চাঙ্গা হয়ে উঠেছেন দলের নেতাকর্মীরা।\হইকবাল হোসেন লিটন জানান, তিনি তার নির্বাচনী এলাকার ৯টি ওয়ার্ডে গত সেপ্টেম্বর মাস থেকে ভোটরদের কাছে উপস্থিত হয়ে নৌকা প্রতীকে ভোট চাইছেন। ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী থাকলেও প্রচার-প্রচারণায় ও সরকারের হাইকমান্ডের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগে মনোনয়ন দৌড়ে অনেকটা এগিয়ে রয়েছেন বলে দাবি করেন লিটন।\হইকবাল হোসেন লিটন জানান, তিনি ১৯৯৬ সালে নান্দিয়াপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি, ২০০১ সালে নদনা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি, ১৯৯৮ সালে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিন ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি, ২০০৪ সালে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি সোনাইমুড়ী উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির নেতা।

মন্তব্য করুন