বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখবে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল

প্রকাশ: ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখতে পারে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল। বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ তৈরিতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। বিনিয়োগকারীদের সংগঠন ভেঞ্চার ক্যাপিটাল অ্যান্ড প্রাইভেট ইক্যুইটি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ভিসিপিয়াব) প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে এ মন্তব্য করেন এনবিআর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। সম্প্রতি ভিসিপিয়াব সভাপতি শামীম আহসানের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল এনবিআর চেয়ারম্যানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে। এ সময় শামীম আহসান ভেঞ্চার ক্যাপিটাল এবং প্রাইভেট ইক্যুইটি খাতের অগ্রযাত্রায় কিছু নীতিমালা সংশোধনের অনুরোধ জানিয়ে বলেন, নীতিমালা সংশোধন হলে স্থানীয় উদ্ভাবনে দারুণ সহায়ক হয়ে উঠবে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল। পাশাপাশি দরিদ্র ও বেকারত্ব দূরীকরণেও সরাসরি ভূমিকা রাখতে পারবেন এ খাতের বিনিয়োগকারীরা। বৈঠকে তথ্যপ্রযুক্তিসহ বিভিন্ন খাতে ভেঞ্চার ক্যাপিটালের মাধ্যমে বিদেশি বিনিয়োগ ত্বরান্বিত করতে সংশ্নিষ্ট নানা বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এ সময় ভিসিপিয়াব মহাসচিব শওকত হোসেন উপস্থিত ছিলেন। ভিসিপিয়াব মহাসচিব শওকত হোসেন বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে জাতীয় বাজেটে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল এবং প্রাইভেট ইক্যুইটি খাতকে বিশেষভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। আমরা প্রত্যাশা করি, এই খাতের উন্নয়নে এনবিআর ট্যাক্সসহ বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতাগুলো গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করবে। ভিসিপিয়াব চেয়ারম্যান শামীম আহসান বলেন, ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ও প্রাইভেট ইক্যুইটি এ ক্ষেত্রে নতুন অর্থনৈতিক সুযোগ নিয়ে আসছে এবং উদ্ভাবনী উদ্যোক্তাদের বড় ধরনের রিটার্নের সুযোগ দিচ্ছে। প্রয়োজনীয় পলিসি সহায়তায় ভেঞ্চার ক্যাপিটাল আগামী ১০ বছরে বিদেশি বিনিয়োগ কয়েকগুণ বাড়াতে পারবে, যার অন্যতম উদাহরণ ভারত, জাপান, ইন্দোনেশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র।

প্রযুক্তি প্রতিদিন প্রতিবেদক