অপসারণযোগ্য দুই ক্যামেরা সংবলিত স্মার্ট ঘড়ি বাজারে ছাড়ার পরিকল্পনা নিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। ধারণা করা হচ্ছে, ফেসবুকের স্মার্ট ঘড়িতে দুইটি বিশেষ ধরনের ক্যামেরা যুক্ত থাকবে যা চাইলে খুলে রাখতে পারবেন ব্যবহারকারী। এ ছাড়া ঘড়ি থেকে ক্যামেরা বিচ্ছিন্ন করে আলাদাভাবে ছবি কিংবা ভিডিও তোলা যাবে। স্মার্ট ঘড়িতে তোলা ছবি ও ভিডিও ফেসবুক ছাড়াও ইনস্টাগ্রাম অ্যাপে শেয়ার করা যাবে। ভিডিও কলিং সেবা পেতে ক্যামেরা দুটির একটি উপরের দিকে সম্মুখ প্রান্তে থাকবে, অন্যটি পেছনের দিকে। আগামী বছরের গ্রীষ্ফ্মেই ফেসবুকের স্মার্ট ঘড়ি বাজারে আসতে পারে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্মার্ট ঘড়িকে স্মার্টফোনের বিকল্প ডিভাইস হিসেবে ব্যবহারযোগ্য করতে কাজ করছে ফেসবুক।

আর সেটি হলে স্মার্ট ঘড়িতেই স্মার্টফোনের যাবতীয় কাজ করা যাবে। ফেসবুকের এ স্মার্ট ঘড়ি হবে আবার পকেটে কিংবা হাতে করে বাড়তি ডিভাইস হিসেবে স্মার্টফোন নিয়ে ঘোরার ঝক্কিও কমবে। আর সেটি বাস্তবায়িত হলে এটি হবে নতুন ঘরানার স্মার্ট ঘড়ি যা ফেসবুক বাজারে আনতে যাচ্ছে। একই ধরনের ক্যামেরা অন্য ডিভাইসেও ব্যবহারের কথা ভাবছে ফেসবুক। এজন্য সংশ্নিষ্ট প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলাপও করছে প্রতিষ্ঠানটি। সাদা, কালো এবং সোনালি রঙে মিলতে পারে ফেসবুকের স্মার্ট ঘড়ি। স্মার্টওয়াচটির দাম পড়বে ৪০০ ডলার। ভার্জসহ বিভিন্ন গণমাধ্যম ফেসবুকের স্মার্ট ঘড়ি সম্পর্কে নিশ্চিত করলেও এ বিষয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছে শীর্ষ জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি।

বিষয় : স্মার্ট ঘড়ি

মন্তব্য করুন