মাইক্রোসফট অ্যাকাউন্ট ব্যবহারে এখন থেকে আর পাসওয়ার্ড প্রয়োজন হবে না। ব্যবহারকারী চাইলে মাইক্রোসফট পাসওয়ার্ডের বদলে অথেনটিকেশন অ্যাপ, উইন্ডোজ হ্যালো, নিরাপত্তা কি, এসএমএস কিংবা ই-মেইল ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে মাইক্রোসফটের যাবতীয় অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে পারবেন।

কোম্পানিটি চলতি বছরের মার্চ মাসে বাণিজ্যিক ব্যবহারকারীদের জন্য পাসওয়ার্ডবিহীন অ্যাকাউন্ট সেবা চালু করে। এবার সব ব্যবহারকারীর জন্য উন্মুক্ত হলো নতুন প্রজন্মের এ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। নতুন ফিচারের আওতায় ব্যবহারকারীরা নিজস্ব অ্যাকাউন্টে পাসওয়ার্ডের বদলে একাধিক বিকল্প পদ্ধতির যে কোনোটি বেছে নিতে পারবেন। মাইক্রোসফটের করপোরেট ভাইস প্রেসিডেন্ট ভাসু জাক্কাল বলেন, প্রযুক্তিটি সফলভাবে চালু করতে তারা টানা কয়েক বছর ধরে কাজ করছেন। এ ব্যবস্থা দূরে বসে অফিসিয়াল কাজে নিরাপত্তার ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে। মাইক্রোসফটের প্রায় সব কর্মী ইতোমধ্যে পাসওয়ার্ডবিহীন অ্যাকাউন্ট সেবার আওতায় এসেছেন। মাইক্রোসফটের দাবি পদ্ধতিটি পাসওয়ার্ড ব্যবহার থেকে বেশি নিরাপদ। তবে মাইক্রোসফটের সব পণ্যেই একযোগে এ ফিচারের সুবিধা মিলবে না। অফিস ২০১০, এক্সবক্স ৩৬০ কনসোল এবং উইন্ডোজ ৮.১ বা এর আগের সংস্করণ চালিত ডিভাইসের ক্ষেত্রে পাসওয়ার্ডেই নির্ভর করতে হবে। নতুন ফিচার চালু না করে ব্যবহারকারী চাইলে পিন কোডও ব্যবহার করতে পারবেন। তবে টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন পদ্ধতি ব্যবহার করলে এখনকার মতো মোবাইল ফোনে কোড কিংবা শর্ট মেসেজে সার্ভিস ই-মেইল ভেরিফিকেশন প্রযোজ্য হবে। এদিকে ডিভাইস হারানো বা চুরি হওয়া কিংবা অন্য কোনো কারণে পরিচয় শনাক্তকারী অ্যাপের মাধ্যমে সংশ্নিষ্ট সেবায় ঢুকতে জটিলতা তৈরি হলে ব্যবহার করতে হবে 'উইন্ডোজ হ্যালো ফেসিয়াল রিকগনিশন' সিস্টেম। এ সিস্টেমটিও নতুন চালু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। বিশ্নেষকরা বলছেন, পাসওয়ার্ডের ঝামেলা থেকে মুক্তি দিতে মাইক্রোসফটের প্রযুক্তিটি কার্যকরী বিকল্প হয়ে উঠতে পারে। প্রযুক্তি প্রতিদিন ডেস্ক

মন্তব্য করুন