ফ্যাশনে টি-শার্ট

প্রকাশ: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

রেজওয়ান পারভেজ দ্বীপ

ছেলেদের হালফ্যাশনে সবচেয়ে আরামদায়ক টি-শার্ট। ক্যাজুয়াল পোশাকে নিজেকে নতুন রূপে খুঁজে পান তারা। শীত শেষে নতুন সঙ্গী যেন এই টি-শার্ট। এ পোশাক সব বয়সীর জন্যই বেশ মানানসই। সে হোক ষোলো বা ছিষট্টি। টি-শার্টের আবেদন যেন সবার কাছেই সমান। সবচেয়ে বড় কথা ক্যাজুয়াল পোশাক হিসেবে টি-শার্টের চেয়ে আরামদায়ক যেন আর কিছুই নেই। এর কদর সব কালেই বিদ্যমান।

টি-শার্ট বলতে অনেকে বোঝেন শুধু রাউন্ড নেক আর পোলো। কিন্তু বর্তমান সময়ে টি-শার্টেও এসেছে অঢেল পরিবর্তন। প্যাটার্ন ও কাটিংয়ে এসেছে ভিন্নতা। রাউন্ড-নেক, ভি-নেক বা পোলো টি-শার্টই এখন বেশি জনপ্রিয়। রাউন্ড নেক টি-শার্টগুলোতে এখন বেশি প্রাধান্য পাচ্ছে নানা ধরনের লেখা, মজার কোটেশন বা কার্টুন। এই ধরনের টি-শার্টগুলো বেশি পছন্দ করছেন তরুণরা।

শীতের বিদায় ঘণ্টা এরই মধ্যে বেজে গেছে। দিনের বেলায় গরম থাকলেও রাতে কিছুটা ঠান্ডা রয়ে গেছে। এই সময়টা কিন্তু টি-শার্টের জন্য একদম সঠিক। অবশ্য ছেলেদের সব ঋতুতেই প্রথম পছন্দ থাকে টি-শার্ট। আর শীত এলে শুধু যুক্ত হয় লম্বা হাতা। আসলে আজকাল ক্যাজুয়াল ওয়্যার স্টেটমেন্ট হিসেবে টি-শার্টের চেয়ে আরাম আর দ্বিতীয়টি নেই। আর আরামের এই ভূষণটির আবেদন প্রায় সবার কাছেই সমান। তাই হাল ফ্যাশনে টি-শার্টের কদর ছিল একাল-সেকাল সবকালেই।

অফিস কিংবা বাজার- কাজে বাইরে বেরোতে ঝটপট পরে নেওয়ার সুবিধা তো রয়েছেই, সঙ্গে ফ্যাশনেবল লুক। তাই সহজভাবেই সবার কাছে টি-শার্টই প্রিয়। আজকাল নানা লেখা আর গ্রাফিক্সের টি-শার্ট দারুণ জনপ্রিয়। এই প্রজন্ম একটু হটকেক। আর ফ্যাশনেও একটু ভিন্নতা থাকা উচিত বলে মনে করেন ফ্যাশন ডিজাইনাররা। মনের ছবির বহিঃপ্রকাশ হিসেবে নিঃসন্দেহে এ এক বেস্ট ট্রেন্ড। পাশাপাশি একরঙা টি-শার্টও ধরে রেখেছে তার উজ্জ্বলতা।

অন্যদিকে স্টাইল স্টেটমেন্টে পোলো টি-শার্টও অনন্য। এটি সাধারণত নিট কাপড়ে তৈরি হলেও ব্র্যান্ডভেদে কিছু কিছু পোলো টি-শার্টের কাপড় এবং বোতামে রয়েছে ভিন্নতা। পোলো টি-শার্ট খুব বেশি এক্সপেরিমেন্টাল পোশাক না হলেও এতে মাঝে মধ্যে ঐচ্ছিক পকেট দিয়ে থাকেন ডিজাইনাররা। বাজারে এক কালারের পোলো টি-শার্ট রমরমা ব্যবসা করলেও পিছিয়ে থাকে না স্ট্রাইপের ডিজাইন করা পোলো টি-শার্টও। স্ট্রাইপ ডিজাইন করা পোলো টি-শার্টগুলোর ডিজাইন পোশাকে আনে বৈচিত্র্য।

বাজারে সবুজের বিভিন্ন শেড, লালের বিভিন্ন শেড, নীল, বাসন্তী, নীল ইত্যাদি রঙের টি-শার্ট ক্রেতার নজর কাড়ছে। এসব উজ্জ্বল রং ছাড়াও কিছু হালকা রং আছে, যা সব বয়স আর সবার পছন্দের শীর্ষে থাকে। যেমন ছাই, বাদামি, হালকা বেগুনি। নিট কাপড়ের টি-শার্ট আরামদায়ক। এ সময় উজ্জ্বল ও শুভ্র রংগুলো সবার পছন্দ। আর তাই এই সময়ে হালকা উজ্জ্বল রঙের টি-শার্ট বেছে নেওয়া ভালো। ফেব্রিক হালকা হলে সহজে বাতাস চলাচল করতে পারে।

এ ছাড়া খুব বেশি ঢিলেঢালা টি-শার্ট না পরে ফিট বা সেমি ফিট টি-শার্ট বেছে নিতে পারেন। ডিজাইনাররা টি-শার্টগুলো তৈরি করেন প্রায় স্লিম ফিট স্টাইলে। বয়স যাই হোক, এমন টি-শার্টে ফ্যাশনেবল লুক খুব সহজেই পাওয়া যায়। সাধারণত টি-শার্টে বোতাম বা কলার হয় না। গোল গলা কিংবা ভি-নেকে বেশ আকর্ষণীয় দেখায়। টি-শার্টে এখন নতুনত্ব হচ্ছে হাফ হাতার নিচের দিকে ও কলারে ভিন্ন কাপড়ের ব্যবহার। এ ছাড়া ফতুয়া গলার টি-শার্টও এখন বেশ চলছে। যেগুলোর হাতা বা নিচের দিকে পাইপিং দেওয়ায় এসেছে নতুনত্ব।

ব্র্যান্ডভেদে পোলো টি-শার্টের দামে রয়েছে ভিন্নতা। ব্র্যান্ডের পোলো টি-শার্ট কিনতে চাইলে গুনতে হবে ৯৫০ থেকে ৩ হাজার টাকা। নন-ব্র্যান্ডের পোলো টি-শার্ট পাওয়া যাবে মাত্র ৩৫০ থেকে হাজার টাকার মধ্যেই। ভালো মানের পোলো টি-শার্ট কিনতে যেতে পারেন ইজি, প্লাস পয়েন্ট, লা রিভ, ইনফিনিটি, সেইলর, কিউরিয়াস, আড়ং, জেন্টাল পার্ক, ক্যাটস আই, অক্সিজেন, রেড, টেক্সমার্ট, কে কদ্ধ্যাফট, বাংলারমেলা, বিশ্বরঙ এবং অঞ্জন'সসহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসে। এ ছাড়া মিলবে নিউমার্কেট, আজিজ সুপার মার্কেট এবং বঙ্গবাজারসহ দেশের ছোট-বড় মার্কেট এবং দোকানে।



মডেল : সানিয়াত, আকবর ও রোহিত

পোশাক : ইজি

ছবি : আল-আমিন পাটওয়ারী