টুঙ্গিপাড়ায় ঘুমাও বাংলাদেশ

প্রকাশ: ১৫ আগস্ট ২০১৯     আপডেট: ১৫ আগস্ট ২০১৯      

কামাল চৌধুরী

চশমা দেখে যায় তোমাকে চেনা

পাইপে আছে এরিনমোরের ঘ্রাণ

হাজার বছর পদব্রজের মাটি

তোমার হাতে সার্বভৌম প্রাণ।



তর্জনীতে এক সাগরের জলে

ভারতমহাসাগর কম্পমান

কাদামাটির তীব্র মাতৃ-দেশে

যাচ্ছে শোনা স্বাধীনতার গান।



তোমার ডাকে মাঠ হয়ে যায় দেশ

আমরা তাদের ভাত-পানিতে মারি

আর দাবায়ে রাখতে পারবা না

সব হৃদয়ে মুজিব তরবারি।



মার্চে দেখি উদ্যানে লালফুল

মার্চে সবাই আগুনকালের ভাই

মহাকালের সেই বিকেলের রোদে

উন্নত শির তোমায় দেখতে পাই।



তুমি আমার নির্বাসনের দিন

বনবাদাড়ে যুদ্ধদিনের রাত

ভয় করি না, অভয় বাণী তুমি

সব হানাদার, শত্রু কুপোকাত।



উদ্যানে ফের দাঁড়িয়ে আছ দেখি

ফিরছ তুমি নিত্য, প্রতিদিন

বিজয় শেষে ফিরছে স্বাধীনতা

ফিরছে আমার বাংলা মায়ের ঋণ।



তবুও আমি রক্তলেখা লিখি

তবুও লিখি অশ্রু-সরোবর

একটি ঝরাপাতার পাশে লিখি

শোকার্ত ফুল, স্মৃতি ও মর্মর।



তুমি ছিলে, থাকবে চিরকাল

চিরন্তন শিখায় জ্বলছে আলো

টুঙ্গিপাড়ায় ঘুমাও বাংলাদেশ

সব বাঙালির বুকে আগুন জ্বালো।